cosmetics-ad

বাবাকে বাঁচাতে নিজের লিভার দান করলেন মেয়ে

india-newsবাবা মায়ের সম্বল তো সন্তানরাই। কিন্তু প্রযুক্তি বা ইঁদুর দৌড়ের এই সময়ে সম্পর্কগুলোতেও যেন কেমন চিড় ধরে যাচ্ছে। কিন্তু রাখি দত্ত যেন সেই কথাটাকেই উড়িয়ে দিলেন ফুৎকারে। তরুণী বয়সেই নিজের লিভারের ৬৫ শতাংশ দান করলেন বাবাকে। আর রাখির এই কীর্তি প্রশংসা এখন নেট দুনিয়ায়।

সম্প্রতি রাখি আর তার বাবার একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। এতে দু’জনের পেটেই অপারেশনের দাগ। সাহসী কন্যা রাখি এই বয়সেই নিজের শরীরের সেই দাগ প্রকাশ্যে দেখাতে বিন্দুমাত্র কুন্ঠাবোধ করছেন না। তথাকথিত সমাজকে চোখে আঙুল দিয়ে রাখি যেন বুঝিয়ে দিতে চাইছে, বাবার জন্য তার মেয়ের এ এক ছোট্ট প্রচেষ্টা মাত্র।

দীর্ঘদিন ধরেই লিভারের সমস্যায় ভুগছেন রাখির বাবা। কলকাতার চিকিৎসকরা বেশ কিছুদিন ধরেই লিভার প্রতিস্থাপনের পরামর্শ দিয়েছিলেন। প্রথমে কলকাতায় বাবার চিকিৎসা সম্পূর্ণ করার চেষ্টা করেন রাখি ও তার পরিবারের সদস্যরা।

কিন্তু সেভাবে সাড়া না মেলায় বাবাকে নিয়ে যান হায়দরাবাদ। সেখানকার একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয় তাকে। জীবনের সবচেয়ে কঠিন ও সাহসী সিদ্ধান্তটা নেন রাখি। নিজের লিভারের ৬৫ শতাংশ দান করলেন বাবাকে।

লিভার ট্রান্সপ্লেনটেশনের পর তার বন্ধু দিভারচিতা দাস একটি ছবি পোস্ট করেন ফেসবুকে। সেখানেই দেখা যায় রাখি এবং তার বাবাকে, দু’জনের পেটে সেলাইয়ের দাগ। তার বন্ধু এরকম সাহসী পদক্ষেপের জন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছেন রাখিকে। শুধু তাই নয়, হাসপাতালের চিকিৎসকরাও রাখিকে ‘ব্রেভ গার্ল’ বলে সম্বোধন করেছেন। বহু মানুষের কাছে রাখি এখন অনুপ্রেরণার নতুন মন্ত্র।

সৌজন্যে- জাগো নিউজ