cosmetics-ad

অকালে ঝরে গেলো আরো এক রেমিটেন্স যোদ্ধার প্রাণ

risad

মাত্র দেড় মাস আগে জীবিকার তাগিদে সৌদি আরবে পাড়ি জমান ফজলুল হক রিসাদ। কিন্তু বিদেশে গিয়ে কিছু গুছিয়ে উঠার আগেই গত ২৭ আগস্ট তার মৃত্যু হয়েছে।

রিসাদের বাড়ি চট্টগ্রামের বারইয়ারহাট পৌরসভায়। তিনি পৌরসভার জামালপুর গ্রামের ফয়েজ আহমেদের ছেলে। তার মরদেহ সৌদি আরবের দাম্মামের আল-মোয়াসাত হাসপাতালের মর্গে রাখা হয়েছে। রিসাদের চাচাতো ভাই মনসুর আহমেদ এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, সৌদি আরবের পূর্বাঞ্চল প্রদেশ দাম্মাম আল-খুদরিয়া নামক স্থানে থাকতেন রিসাদ। গত ২৭ আগস্ট রুমের বিদ্যুৎ চলে গেলে জেনারেটর চালু রেখে ঘুমিয়ে পড়েন। ওই জেনারেটরের কালো ধোয়ায় মৃত্যু হয় তার।

একই রুমে মোট পাঁচজন থাকতেন তারা। তাদের মধ্যে একজন প্রতিদিনের মতো তার কাজ শেষে ভোর পাঁচটার দিকে ওই রুমে ঘুমাতে এসে দেখেন, রুম কালো ধোয়ায় অন্ধকার হয়ে আছে এবং সবাই অচেতন অবস্থায় পড়ে আছে। তাৎক্ষনিক তার চাচাতো ভাইসহ সবাইকে ফোন করেন। সেখানে এসে পুলিশকে খবর দেন তারা। পুলিশ এসে তাদের উদ্ধার করে দাম্মামের আল-মোয়াসাত হাসপাতালে নিয়ে যান। হাসপাতাল থেকে চিকিৎসা শেষে বেঁচে যাওয়া তিনজনকে পরের দিন রিলিজ দেয়া হয়।