Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

‘বাংলাদেশি হিন্দুরা স্বাগত, মুসলিমদের ঠাঁই নেই’

india-newsভারতের আসামে এনআরসির চূড়ান্ত তালিকা থেকে বাদ পড়েছে ১৯ লাখের বেশি মানুষের নাম। এদিকে শনিবার বর্ধমানে এক সাংগঠনিক সভায় বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছেন, বাংলাদেশি হিন্দুরা এদেশে স্বাগত কিন্তু অনুপ্রবেশকারী মুসলমানদের ঠাঁই নেই। তিনি বলেন, এ ক্ষেত্রে কোনো ছাড় দেয়া হবে না।

chardike-ad

দিলীপ ঘোষ বলেছেন পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি ক্ষমতায় এলে সেখানেও এনআরসি জারি করা হবে। তবে পশ্চিমবঙ্গের বর্তমান তৃণমূল সরকার এর প্রবল বিরোধী। এমনকি বিরোধী বাম ও কংগ্রেসও এর বিরোধিতা করেছে। কিন্তু এনআরসি জারি করতে বিজেপি অটল ভূমিকা নেবে বলে জানিয়েছেন দিলীপ ঘোষ।

আসামের ১৯ লাখেরও বেশি মানুষের নাম চূড়ান্ত জাতীয় নাগরিক তালিকা থেকে বাদ পড়েছে। এখন বড় প্রশ্ন হচ্ছে এই ১৯ লাখ বাংলাভাষী মানুষের, যাদের সিংহভাগই মুসলমান, এখন কী হবে। তারা কি রাষ্ট্রহীন হয়ে পড়লেন? এখনই সেটা তারা হচ্ছেন না। বাদ পড়া এই মানুষদের আপিলের জন্য ১২০ দিন সময় দেয়া হয়েছে।

বিশেষভাবে তৈরি ট্রাইব্যুনাল ছাড়াও তারা হাইকোর্ট বা সুপ্রিম কোর্টেও আপিল করতে পারবেন। তবে ভারতের সমস্ত আদালত এমনিতেই সারা বছরই মামলার চাপে পর্যুদস্ত। ফলে আদালতে গিয়ে দীর্ঘ, জটিল এবং ব্যয়বহুল আপিল প্রক্রিয়ার সুবিধা কতজন নিতে পারবেন তা নিয়ে পর্যবেক্ষকদের মধ্যে বিস্তর সন্দেহ রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে দিলীপ ঘোষের এমন উসকানিমূলক বক্তব্য তালিকা থেকে বাদ পড়াদের আরও আতঙ্কের মধ্যে ফেলবে।