cosmetics-ad

সহমর্মিতার প্রতীক হলুদ ফিতে

সিউল, ২৮ এপ্রিল ২০১৪:

দানউওন স্কুলের প্রধান ফটকের লোহার শিকগুলোতে উজ্জ্বল হলুদ রংয়ের ফিতে বাঁধা। আশেপাশের সব গাছে, পিলারে হলুদের যেন মেলা বসেছে। দক্ষিণ কোরিয়ার স্মরণকালের ইতিহাসে সবচেয়ে ভয়াবহ ফেরী দুর্ঘটনায় নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা আর এখনও নিখোঁজ কারও ‘অলৌকিক’ভাবে ফিরে আসার প্রত্যাশায় বাঁধা হচ্ছে এই হলুদ ফিতে।

সহমর্মিতা আর আশার বাণী সম্বলিত হলুদ ফিতে ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে সিউল হয়ে আশেপাশের শহরগুলোতে। কেবল সান্ত্বনা জানানোই নয়, হাতে-মাথায় হলুদ ফিতে বেঁধে চলছে নিহত ও নিখোঁজদের পরিবারের জন্য তহবিল সংগ্রহের কাজ।

140424040651-danwon-school-ferry-story-top

শোকার্তদের মিছিলে যোগ দিচ্ছেন তারকারাও। সিউলের জনপ্রিয় ফুটবল ক্লাব এফসি সিউল শনিবারের একটি ম্যাচ খেলতে নামে হলুদ রিবন পরিধান করে। কোরিয়া জাতীয় দলের ফুটবলার পার্ক ছু ইয়ং, অলিম্পিক ফিগার স্কেটার কিম ইয়না ও বেসবল তারকা হিউন জিন রিও প্রত্যেকে দিয়েছেন ১০ কোটি উওন করে অর্থ সহায়তা।

ইন্টারনেটের অবাধ ব্যবহারের যুগে সমবেদনার হলুদ ছড়িয়ে পড়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতেও। কোরিয়ান পপ তারকা জি ড্রাগন তাঁর টুইটার একাউন্টে পোস্ট করেছেন হলুদ রিবনের ছবি, অভিনেত্রী পার্ক শিন হে হলুদ রিবনের প্রোফাইল পিকচারের সাথে যোগ করেছেন দেশের জন্য প্রার্থনার আহ্বানসূচক হ্যাশট্যাগ। ফেসবুক ও স্থানীয় সোশ্যাল নেটওয়ার্ক নাভারে প্রচুর ব্যবহৃত হচ্ছে কালো

ফ্রেমের হলুদ একটা ছবি, মাঝখানে কালো বর্ণে ধনুক আকৃতির প্রতীকের নীচে কোরিয়ান ভাষায় লেখা ‘একটি সামান্য পদক্ষেপ, অসামান্য অলৌকিকতা’।
প্রসঙ্গত, ১৯৭৯ সালে ইরানে একদল মার্কিন কূটনীতিক জিম্মি হওয়ার ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্রে সংহতির প্রতীক হিসেবে হলুদ ফিতের ব্যবহার শুরু হয়। ইরাক ও আফগানিস্তান যুদ্ধের সময়ও নিহত সেনাদের স্মরণে মার্কিনীরা হলুদ ব্যাজ ধারণ করে।