cosmetics-ad

যুক্তরাজ্যে মাদক ব্যবসার দায়ে ২ বাংলাদেশির কারাদণ্ড

uk-bangladeshi

যুক্তরাজ্যে মাদক ব্যবসায় জড়িত থাকার দায়ে দুই ব্রিটিশ বাংলাদেশিকে তিন বছর করে কারাদণ্ড দিয়েছে যুক্তরাজ্যের একটি আদালত। পূর্ব লন্ডনে সমন্বিত এক অভিযানের মাধ্যমে তাদের গ্রেফতার করা হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত দুইজন হলেন- রুকন আহমেদ (২৯) ও দিলরাজ মিয়া (২৯)। গত ১৮ নভেম্বর (সোমবার) স্নেয়ার্সব্রুক ক্রাউন কোর্ট এ দণ্ডাদেশ দেয়।

চলতি বছর মাদকবিরোধী প্রচারণায় নামে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত জনগোষ্ঠী অধ্যুষিত টাওয়ার হ্যামলেট ও হ্যাকনি বারাহ এলাকার বাসিন্দারা। তাদের দাবি, মাদকের কারণে ওই এলাকায় অপরাধ বেড়ে গেছে। এর পরই মেট্রোপলিটন পুলিশের অনুসন্ধানে চারটি আলাদা ফোন লাইন ব্যবহার করে মাদক কেনাবেচার তথ্য পায়। পরে মোট আট সদস্যকে চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে গ্রেফতার করা হয়।

দণ্ডপ্রাপ্ত রুকন আহমেদ ও দিলরাজ মিয়ার বিরুদ্ধে নিষিদ্ধ ঘোষিত ‘এ’ শ্রেণির (‘এ’ শ্রেণির মাদকে হেরোইনও রয়েছে) মাদক সরবরাহের প্রমাণ পায় আদালত। এছাড়া মাদক গ্রহণের দুটি ধারায় তাদের অপরাধ প্রমাণিত হয়।

হেরোইনের মতো মাদক ব্যবহারের কারণে ব্যক্তি ও স্থানীয় সম্প্রদায়ের মারাত্মক পরিণতি ঘটাতে পারে। এছাড়া আসামিরা প্রায়ই শিশুদের সামনেই মাদক ব্যবসা করত বলে জানান যুক্তরাজ্যের ক্রাউন প্রসিকিউশন সার্ভিসের কর্মকর্তা জোনাথন শেফার্ড।

জোনাথন শেফার্ড আরও বলেন, চিহ্নিত মাদক ব্যবহারকারীদেরকে ওই অঞ্চলে চলাফেরা করতেও উৎসাহিত করেছে তারা। এ বিচারের প্রধান লক্ষ্য হলো সমাজবিরোধী আচরণ কমিয়ে আনতে সংঘবদ্ধ মাদক কারবারি চক্রের কার্যক্রম বন্ধ করা। এ বিচারে প্রমাণ হয়েছে, ক্রাউন প্রসিকিউশন সার্ভিস মাদক ব্যবসাকে খুবই গুরুত্ব সহকারে দেখে। এছাড়া মাদকের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের অবশ্যই আদালতের মুখোমুখি হতে হবে।