Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

মালয়েশিয়া থেকে অবৈধদের ফিরতে বিমানের টিকিটে ভর্তুকি

bangladesh-bimanমালয়েশিয়ার ব্যাক ফর গুড কর্মসূচিতে বিমানের টিকিটের মূল্যে দুই হাজার টাকা ছাড় দেয়া হয়েছে। এ কর্মসূচির আওতায় দেশে ফিরতে ইচ্ছুক অবৈধ কর্মীদের এ সুবিধা দেয়া হবে। এ ছাড়া বাংলাদেশ প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের তহবিল থেকে তাদের টিকিটে জনপ্রতি ১০ হাজার টাকা করে ভর্তুকি দেয়া হবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে।

বাংলাদেশ হাইকমিশন সূত্রে জানা গেছে, মালয়েশিয়া সরকারের প্রবর্তিত ব্যাক ফর গুড কর্মসূচির আওতায় অনিয়মিত কর্মীদের দেশে প্রত্যাবর্তনে আর্থিক সহযোগিতা দেয়ার জন্য মালয়েশিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার শহীদুল ইসলাম গত ২৯ নভেম্বর সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে একটি চিঠি পাঠান।

হাইকমিশনারের চিঠির পরিপ্রেক্ষিতে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ও সচিব এবং বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী ও সচিবের মধ্যে আলোচনা হয়। এরপর ওই সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে ১০ ডিসেম্বর প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব সঞ্জিব কুমার দেবনাথ স্বাক্ষরিত একটি নোটিশে জানানো হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, কুয়ালালামপুর টু ঢাকা, ‘ব্যাক ফর গুড’ কর্মসূচির সুবিধা নিয়ে দেশে ফিরে যেতে বাংলাদেশ সরকার ১৪ ডিসেম্বর থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের অতিরিক্ত ১৬টি ফ্লাইটের ব্যবস্থা করেছে। এই ১৬টি ফ্লাইটে ব্যাক ফর গুডের যাত্রীরা শুধু ১২ হাজার টাকা ভর্তুকি পাবেন। অন্য এয়ারলাইন্সে ব্যাক ফর গুডের যাত্রীরা এ সুবিধা পাবেন কি না, বিষয়টি পরিষ্কার নয়।

এ বিষয়ে ব্যাক ফর গুড সুবিধা নিয়ে দেশে ফিরে যেতে যারা অন্য এয়ারলাইন্সে টিকিট কেটেছেন বা যাবেন তাদের মধ্যে হতাশা বিরাজ করছে। অনেকে ফোন করে জানতে চাচ্ছেন, এ সুবিধা তারাও পাবেন কি না। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, রিজেন্ট, ইউএস বাংলা, মালিন্দো বা মাস এয়ারে বহন করা ব্যাক ফর গুডের যাত্রীরা এ ভর্তুকি পাবেন কি না, তা তারা জানেন না।

chardike-ad

ওপরদিকে প্রবাসীদের অধিকার ও কল্যাণ নিয়ে সোচ্চার সংগঠনগুলো জানিয়েছে, ব্যাক ফর গুডের আওতায় দেশে ফিরতে চাওয়া সব ব্যক্তিকে এই ভর্তুকির আওতায় আনা হলে কোনো বৈষম্য হবে না। রাষ্ট্র তার নাগরিকদের মধ্যে বৈষম্য করতে পারে না। করলে তা স্পষ্ট সংবিধানের লঙ্ঘন হবে।

এই অতিরিক্ত ১৬টি ফ্লাইটের টিকিট কাটতে কোনো সমস্যা হলে হাইকমিশনের নিম্নলিখিত টেলিফোন নম্বরে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে। ৬০১২২৯০৩২৫২, +৬০১২২৯৪১৬১৭, +৬০১২৪৩১৩১৫০ এবং বিমান অফিস +৬০১২২৭৩৬৬৭৬।

এ দিকে ব্যাক ফর গুড কর্মসূচিতে বিভিন্ন দেশের মোট ১ লাখ ২ হাজার ৬১৮ অবৈধ অভিবাসী অংশ নিয়েছেন। মালয়েশিয়ার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সেক্রেটারি-জেনারেল তান শ্রী আলভি ইব্রাহিম বলেছেন, ইন্দোনেশিয়ানরা সবচেয়ে বেশিসংখ্যক রেকর্ড করেছে ৩৭০৪৮, এরপরে রয়েছে বাংলাদেশ ৩১,১০১, ভারত ১,১০৭, পাকিস্তান ৫,২৫৮ এবং বাকি অন্যান্য দেশের।

তান শ্রী আলভি ইব্রাহিম বলছেন, আমরা আশা করছি, ব্যাক ফর গুড কর্মসূচির মাধ্যমে সব অবৈধ অভিবাসী নিজ নিজ দেশে ফিরে যাবেন। পুত্রজায়া ও কুয়ালালামপুরের ইমিগ্রেশন অফিসগুলোতে ভিড় না করে, অন্যান্য রাজ্যের ইমিগ্রেশন অফিস থেকে স্পেশাল নেয়ার জন্য আহ্বান জানান তিনি।