cosmetics-ad

মালয়েশিয়ায় বিপদে পড়তে যাচ্ছেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা

malaysia

মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসীদের বিরুদ্ধে চলমান অভিযানের পাশাপাশি বিদেশিদের ক্ষুদ্র ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ করতে উদ্যোগ নিয়েছে প্রশাসন। মালয়েশীয় নাগরিকদের মাসিক চুক্তিভিত্তিক লাইসেন্স নিয়ে যারা ব্যবসা করছেন তাদের আইনের আওতায় আনতে সিটি কর্পোরেশন থেকে শুরু করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মাঠে নামবে বলে জানা গেছে।

অভিবাসন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, যাদের ভিসা এক কোম্পানিতে এবং কাজ করছে অন্য জায়গায় তাদের আটক করতেই অভিযান জোরদার করা হবে। বিভিন্ন সময়ে মালয়েশিয়ায় কোম্পানিতে আসার পর কিছু দিন যেতে না যেতেই ছুটি এবং পালিয়ে যাওয়ার পর বিভিন্ন জায়গায় কর্মরত এসব বিদেশিদের আইনের আওতায় আনতে মালয়েশিয়ার মালিকদের সংগঠনের পক্ষ থেকে দাবি জানানো হয়েছে।

অধিকাংশ সময় মালয়েশিয়ার নাগরিকরা সোশ্যাল মিডিয়ায় বিদেশি শ্রমিকদের ব্যবসা-বাণিজ্যের ছবি ফেসবুকে ভাইরাল করছে। কীভাবে বিদেশি অভিবাসীরা আমাদের এখানে ব্যবসা করছে এমন সব প্রশ্ন রেখে সমালোচনা করে। স্থানীয় নাগরিকদের অভিযোগেরভিত্তিতে সিটি কর্পোরেশন, ইমিগ্রেশন ও পুলিশের সমন্বয়ে চলবে এ অভিযান।

দেশটির বিভিন্ন শহর ও গ্রাম এলাকায় বিদেশি শ্রমিকরা ব্যবসা পরিচালনা করেছেন বলে মালয়েশীয়দের অভিযোগ দীর্ঘদিনের। এবার সেদিকেই অভিযান পরিচালনা করার ঘোষণা দিলো প্রশাসন।

সম্প্রতি মালয়েশিয়ার নাম করা হোলসেল মার্কেটের এক চেয়ারম্যান পুত্রজায়ায় অনুষ্ঠিত এক সভায় জানান, অলিতে-গলিতে বিদেশিরা ব্যবসা করছে। ছোট ছোট ব্যবসা করছে বিদেশি নাগরিকরা। ফলে মালয়েশিয়ার নাগরিকরা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে, যা আমাদের দেশের নাগরিকরা করতে পারত। কিন্তু সেই ব্যবসা-বাণিজ্য এখন বিদেশিদের হাতে থাকার কারণে স্থানীয় নাগরিকদের ব্যবসায় মন্দাভাব যাচ্ছে।

ওই ব্যবসায়ী বলেন, বিদেশি নাগরিকরা তাদের পরিচিতদের দেখে ক্রয় করতে ভালোবাসেন। যার প্রভাব স্থানীয় নাগরিকদের ব্যবসা-বাণিজ্যের ওপর পড়েছে। তবে আমরা স্বাগত জানাই বড় বিদেশি ব্যবসায়ীদের। ওই অভিযোগের পর মালয়েশীয় একটি পত্রিকায় বিদেশি শ্রমিকদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান নিয়ে ফলাও করে সংবাদ প্রকাশ করেছে।

কুয়ালালামপুরের সহকারী পুলিশ কমিশনার স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমকে জানান, আমরা বিদেশি শ্রমিকদের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে কয়েকবার অভিযান পরিচালনা করে আটক করেছি। ওই পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, রাজধানীর প্রাণকেন্দ্র বাংলা মার্কেট নামে পরিচিত কোতারায়া, পাছার বোরোং সেলায়াং, বুকিত বিংতাংসহ সে দেশের বিভিন্ন স্থানে বিদেশি অভিবাসীরা স্থানীয় নাগরিকদের মাসিক কিছু টাকার বিনিময়ে লাইসেন্স নিয়ে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছে।

এ ছাড়া বিভিন্ন অপরাধ কর্মকাণ্ডে জড়িত এসব ছোট ব্যবসা প্রতিষ্ঠান। যার কারণে অভিবাসন বিভাগের পক্ষ থেকে দেশটির বিভিন্ন প্রান্তে গড়ে ওঠা বিদেশি অভিবাসীদের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নজর বৃদ্ধি করা হবে বলে একাধিক সূত্রে জানা গেছে। যেসব প্রতিষ্ঠানে স্থানীয় নাগরিকদের পাওয়া যাবে না তাদের লাইসেন্স বাজেয়াপ্ত করার জন্য অনুরোধ করেছে মালয়েশিয়ার একাধিক সংগঠন।