cosmetics-ad

মালয়েশিয়ায় অভিবাসীদের আটকের ক্ষমতা শুধু তিন বাহিনীর

malaysia-imigrants

মালয়েশিয়ায় বেসরকারি সংস্থা কর্তৃক সেখানে অবস্থানরত অবৈধ অভিবাসীদের আটকের জন্য অভিযান পরিচালনার প্রস্তুতি সম্পর্কে কঠোর বার্তা দিলেন দেশটির ইমিগ্রেশন প্রধান দাতুক খায়রুল দাজাইমি দাউদ।

তিনি বলেন, ‘মালয়েশিয়ায় অবস্থানরত অবৈধ অভিবাসীদের আটকের অধিকার শুধু তিন বাহিনীর। আর এ তিন বাহিনী হলো- ইমিগ্রেশন, পুলিশ ও কাস্টমস পুলিশ। এর বাইরে কারও আটকের ক্ষমতা আইন বহির্ভূত। যেটা সেকশন ৫১, ইমিগ্রেশন আইনের ১৯৫৯ ধারায় ৬৩ তে উল্লেখ রয়েছে।’ বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) বেসরকারি সংস্থাগুলোকে এক হুঁশিয়ারি বার্তা দিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

দাজাইমি দাউদ বলেন, ‘অভিবাসীদের আটকের ক্ষমতা অন্য কোনো বেসরকারি সংস্থা, ব্যক্তি বা নাগরিক রাখে না। স্থানীয় নাগরিকরা শুধু আমাদের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে পারে। কিন্তু কোনো অবৈধ অভিবাসীদের আটকের অনুমতি নেই।’

মালয়েশিয়া টুডের এক খবরে বলা হয়েছে, সে দেশে অবস্থান করা অবৈধ অভিবাসীদের আটকের জন্য আমাদের এক হাজার সদস্য প্রস্তুত আছে। এ সময় পুত্রা ভাইস প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ খায়রুল আজাম আব্দুল আজিজ বলেন, ‘আমাদের দেশে অবৈধ অভিবাসীদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে যা আমাদের জন্য হুমকি স্বরূপ।’

এদিকে অভিবাসন বিভাগের প্রধান জানান, জানুয়ারি থেকে আটক অবৈধ অভিবাসীদের আইনের মুখোমুখি হতে হবে। তাদের জিজ্ঞাসাবাদের পাশাপাশি জেল-জরিমানা নির্ধারণ করা হবে।