Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

জিমনেসিয়ামে মধ্যবয়সী নারীদের প্রবেশ নিষেধ

যেসব ‘আন্টিদের’ আচরণ ভালো নয়, তাদের প্রবেশের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে দক্ষিণ কোরিয়ার একটি জিমনেসিয়াম। এ ঘটনায় দেশটিতে বয়স্ক নারীদের প্রতি বৈষম্যের বিতর্ক শুরু হয়েছে।

রাজধানী সিউলের কাছে ইনচিওন শহরের জিমটির বাইরে লেখা ছিল, ‘আজুম্মাদের (মধ্যবয়সী নারী) জন্য সীমিত প্রবেশাধিকার’ এবং ‘শুধু সংস্কৃতমনা ও মার্জিত নারীদের জন্য।’

‘আজুম্মা’ শব্দটি ত্রিশোর্ধ্ব নারীদের জন্য প্রয়োগ করা হয় দক্ষিণ কোরিয়া। তবে এটি অভদ্র বা ঘৃণ্য আচরণের জন্যও ব্যবহার করা হয়।

স্থানীয় প্রতিবেদনে জিম বা এর মালিকের নাম উল্লেখ করা হয়নি। ওই জিমের মালিকের দাবি, এই নারীদের অবাধ্য আচরণের কারণে তার কোম্পানি ‘ক্ষতিগ্রস্ত’ হয়েছে।

chardike-ad

দক্ষিণ কোরিয়ার সংবাদ সংস্থা ইয়োনহাপকে তিনি বলেছেন, ‘(কিছু বয়স্ক মহিলা গ্রাহক) তাদের পোশাক পরিবর্তনের জন্য চেঞ্জিং রুমে এক বা দুই ঘন্টা ব্যয় করতেন, তোয়ালে, সাবান বা হেয়ার ড্রায়ারসহ জিনিসপত্র চুরি করতেন।’

তিনি বলেন, ‘তারা এক সারিতে বসে মন্তব্য করতো এবং অন্য মানুষের দেহ বিচার-বিশ্লেষণ করতো। কয়েকজন অল্প বয়স্ক নারী এ ধরনের মন্তব্যের কারণে জিম ছেড়ে দিয়েছে।’

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকে এর সমালোচনা করে বলেছেন, ‘কীভাবে খারাপ গ্রাহক শব্দটি আজুম্মা হয়ে গেল? আপনি যদি পরিষেবা শিল্পে কাজ করে থাকেন তবে আপনি জানেন, কেবল বয়স্ক নারীরাই এই বিভাগে পড়েন না।’

আরেকজন লিখেছেন, এগুলো সেকেলে আচরণের বহিঃপ্রকাশ।