sentbe-top

গণিতে সর্বোচ্চ সম্মাননা ফিল্ডস মেডেলে ভূষিত ইরানি নারী

বিশ্বে প্রথম নারী হিসেবে গণিত চর্চায় সর্বোচ্চ সম্মাননা ফিল্ডস মেডেলে ভূষিত হলেন ইরানি গণিতবিদ মরিয়ম মির্জাখানি। এই সম্মাননাকে নোবেল পুরস্কারের সমতুল্য হিসেবে বিবেচনা করা হয়।

বুধবার সিউলে ইন্টারন্যাশনাল কংগ্রেস অব ম্যাথামেটিশিয়ানস আরও তিনজন গণিতবিদের সঙ্গে স্টানফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গণিতের অধ্যাপক এই নারীর নাম ঘোষণা করে ফিল্ডস মেডেল বিজয়ী হিসেবে।আজ বিজয়ীদের হাতে মেডেল তুলে দেন দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট পার্ক গুণ হে।

140813_p01_prof ১৯৩৬ সালে চালুর পর থেকে এ পর্যন্ত ৫৬ জন গণিতবিদ এ পুরস্কার পেয়েছেন। তাদের মধ্যে প্রথম নারী মরিয়ম মির্জাখানি।

পুরস্কার পাওয়ায় স্টানফোর্ড ইউনিভার্সিটির ওয়েবসাইটে অনুভূতি প্রকাশ করে মির্জাখানি বলেন, এটি অনেক বড় সম্মান। আমি খুশি হবো এই পুরস্কার যদি কম বয়সী নারী বিজ্ঞানী ও গণিতবিদদের অনুপ্রাণিত করে। আমি নিশ্চিত সামনে আরও অনেক নারী এ ধরনের পুরস্কার লাভ করবেন।ইরানের রাজধানী তেহরানে জন্ম নেয়া মির্জাখানি ডক্টরেট করার জন্য হার্ভার্ডে যাওয়ার আগ পর্যন্ত ইরানেই বসবাস করতেন।

তবে গণিতবিদ নয়, কৈশোরে লেখক হতে চেয়েছিলেন তিনি। তার কথায়, প্রথমে তিনি লেখক হতে চেয়েছিলেন কিন্তু পরবর্তীকালে গাণিতিক সমস্যা সমাধানই অধিক আকর্ষণীয় মনে হয়েছে তার কাছে। প্রতি চার বছরে একবার দেয়া হয় গণিতের এই সর্বোচ্চ সম্মাননা। ইন্টারন্যাশনাল ম্যাথমেটিকাল ইউনিয়ন এ পুরস্কার ঘোষণা করে।

এদিকে ফিল্ডস মেডেল পাওয়ায় মরিয়ম মির্জাখানিকে অভিনন্দন জানিয়েছেন স্টানফোর্ড ইউনিভার্সিটির প্রেসিডেন্ট জন হেনেসি।মির্জাখানির সঙ্গে ফিল্ডস মেডেল পাওয়া অপর তিন গণিতবিদ হলেন ফ্রান্সের আর্টার অ্যাভিলা, নিউজার্সির প্রিন্সটন বিশ্ববিদ্যালয়ের মানজুল ভারগাজা এবং বৃটেনের ওয়ারউইক বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্টিন হাইরার।

sentbe-top