cosmetics-ad

মাত্র ৭ ঘণ্টায় সারা পৃথিবী!

plain

পৃথিবীর সব জায়গায় যেতে কম বেশি সময় লাগে। তাই বলে যেকোন প্রান্তে যেতে লাগবে মাত্র ৭ ঘণ্টা! তাহলে কি পৃথিবীটাই ছোট হয়ে আসছে? নাকি পৃথিবীটাকে ছেঁটে ছোট করছে পৃথিবীর পরাক্রমশালী দেশগুলো। তেমন আভাস না মিললেও এবার দূরত্ব কমানোর আভাস দিয়েছে রাশিয়া।

তারা আগামী এক দশকের মধ্যে বিশ্বের যেকোনো স্থানে সাত ঘণ্টার মধ্যে চারশ` ট্যাংকসহ ভারি অস্ত্রে সজ্জিত সেনা মোতায়েন করতে পারবে।

মস্কোর সামরিক-শিল্প কমিশনের তৈরি করা নতুন বিমানের নকশার ভিত্তিতে এ দাবি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, ২০২৪ সালের মধ্যে ঘণ্টায় সর্বোচ্চ দুই হাজার কিলোমিটার বেগে উড়তে সক্ষম সুপারসনিক গতির অন্তত ৮০টি সামরিক পরিবহন বিমান পিএকে টিএ তৈরি করবে মস্কো।

সাত হাজার কিলোমিটার পাড়ি দিতে সক্ষম এ বিমানের বহন ক্ষমতা হবে দুইশ’ টন। ফলে এক দশকের মধ্যে পিএকে টিএ বিমান বহরের মাধ্যমে রণ-প্রস্তুত ভারি অস্ত্রে সজ্জিত সাঁজোয়া বাহিনীকে বিশ্বের যে কোনো স্থানে মোতায়েন করতে পারবে রাশিয়ার সেন্ট্রাল কমান্ড।

এ বিমান বহরের সহায়তায় ৪০০ ভারি আরমান্তা ট্যাংক মোতায়েন করা যাবে। এছাড়া, ট্যাংক বিধ্বংসী স্পূর্ত-এসডি’র মতো ৯০০ হালকা সাঁজোয়া গাড়িও বিমানযোগে মোতায়েন করা সম্ভব হবে।

ইরাকে আগ্রাসনের জন্য আমেরিকা যে বিপুল সংখ্যক সেনা ও অস্ত্র মোতায়েন করেছিল ভবিষ্যতে রাশিয়া সে পরিমাণ সেনা ও অস্ত্র কয়েক ঘণ্টার নোটিশেই বিশ্বের যেকোনো স্থানে মোতায়েন করতে পারবে বলে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রুশ সামরিক সূত্র থেকে দাবি করা হয়েছে।

রুশ বাহিনী এর আগে এ জাতীয় কোনো দাবি করেনি এবং তাদের এ দাবি খোদ রাশিয়ার ভেতরেই বেশ বিস্ময়ের সৃষ্টি করেছে।

সৌজন্যেঃ জাগোনিউজ