cosmetics-ad

ভারতের নতুন কোচ রবি শাস্ত্রী

robi

সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ভারতের জাতীয় দলের কোচ হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ভারতের সাবেক অলরাউন্ডার ও অধিনায়ক, বিখ্যাত ধারাভাষ্যকর রবি শাস্ত্রী। অনিল কুম্বলের উত্তরসূরি হিসেবে আগামি ২ বছরের জন্য রবি ভারতের জাতীয় দলের দায়িত্ব নেবেন বলে ভারতের বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর প্রকাশ হয়েছে।

সোমবার কোচের পদে প্রার্থীদের সাক্ষাৎকার শেষে বিরাট কোহলির সঙ্গে কথা বলার প্রয়োজনীয়তা জানিয়ে কোচ নিয়োগে সময় চেয়েছিলেন ক্রিকেট এডভাইজারি কমিটির (সিএসি) প্রধান সৌরভ গাঙ্গুলি। অথচ সে ঘোষণার ২৪ ঘণ্টা না পেরোতেই ভারতের নতুন কোচের নাম জানা গেল।

কোচের পদে রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন বিরেন্দ্রর শেবাগ, অ্যান্ডি পাইবাস, লালাচাদ রাজপুত ও টম মুডি।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালে ইংল্যান্ডে সিরিজ হারার পর ডানকান ফ্লেচারের হাত খেতে কোহলির দায়িত্ব নিয়েছিলেন রবি শাস্ত্রী। ২০১৪ সাল থেকে ২০১৬ সাল পর্যন্ত রবি শাস্ত্রী টিম ডিরেক্টর হিসেবে কোহলিদের সঙ্গে কাজ করেছিলেন। বিপর্যস্ত ভারতীয় দলকে শাস্ত্রী-কোহলির রসায়ন দারুণ কাজে দিয়েছিল। ভারতও ধীরে ধীরে অদম্য ক্রিকেট দল হয়ে ওঠে তখন। কিন্তু টি-২০ বিশ্বকাপ ও বিশ্বকাপে ভারতের ব্যর্থতার পর রবি শাস্ত্রীকে তার পদ থেকে সরিয়ে দেয়া হয়। এভাবে ভারতীয় দলের সঙ্গে রবি শাস্ত্রীর ১৮ মাসের সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়।

শাস্ত্রীকে সরিয়ে সেসময় ভারতের আরেক সাবেক অধিনায়ক অনিল কুম্বলেকে কোচ নিয়োগ দেয় সিএসি। কুম্বলের আমলেও ভারতের সফলতার হার বেশি হলেও অধিনায়ক কোহলি ও দলের সিনিয়র খেলোয়াড়দের সঙ্গে কুম্বলের সম্পর্ক তিক্ততার পর্যায়ে চলে গিয়েছিল। তাই সদ্য সমাপ্ত চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ফাইনালে পাকিস্তানের কাছে হারার পর দল থেকে পদত্যাগ করেন কুম্বলে। কোচহীন অবস্থাতেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে যায় টিম ইন্ডিয়া। এসময়েই নতুন করে কোচের পদে প্রার্থীদের অবেদন গ্রহণ করে বিসিসিআই। প্রথমে রবি শাস্ত্রী অাবেদন না করলেও আবেদনের সময়সীমা বাড়ানো হলে সিএসি সদস্য শচীন টেন্ডুলকারের অনুরোধে কোচের পদে আবেদন করেন শাস্ত্রী।

৫৫ বছর বয়সী শাস্ত্রী ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত ভারতের কোচ হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন। আর এ দায়িত্ব শুরু হচ্ছে আসন্ন শ্রীলঙ্কা সফর থেকেই। এবার দেখা যাক শাস্ত্রী-কোহলি ম্যাজিক আবার জ্বলে উঠে কি না!