সুযোগ বাড়ল বৈবাহিক সূত্রে সৌদির নাগরিক হওয়া নারীদের

saudiসন্তান জন্মদানের কারণে নাগরিকত্ব পাওয়া নারীরা শ্রমবাজারে সৌদি নারীদের মতোই সমান সুযোগ সুবিধা পাবেন। ফলে দেশটিতে জন্মসূত্রে নাগরিক ও সন্তান জন্মদান সূত্রে প্রাপ্ত নারী নাগরিকদের যে পার্থক্য রয়েছে তা তাদের এই কর্মক্ষেত্রে বৈষম্য করবে না বলে জানা গেছে।

সৌদি প্রেস এজেন্সির বরাতে সৌদি গেজেটের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। গতকাল রোববার দেশটির শ্রম ও সামাজিক উন্নয়ন মন্ত্রণালয় থেকে ড. আলি আল-ঘাফিস স্বাক্ষরিত একটি আদেশনামা এরই মধ্যে সংশ্লিষ্ট দপ্তর সমূহে পৌঁছে গেছে বলে প্রতিবেদনে জানা যায়।

সৌদি আরবের স্থানীয় নয় এমন পিতা-মাতার সন্তানের নাগরিকত্ব পাওয়াটা খুবই কঠিন ব্যাপার। সৌদি নাগরিকদের মধ্যে প্রবাসীদের বিয়ে করার হার বৃদ্ধির কারণে একই সাথে সন্তান জন্মের পর সন্তান নাগরিকত্ব পেলেও, পিতামাতার বিশেষ করে মায়ের নাগরিকত্ব না থাকার কারণে অনেক রাষ্ট্রীয় সুবিধা থেকে বঞ্চিত হতেন।

গত ৬০ বছরের মধ্যে নাগরিকত্ব নিয়ে দেশটিতে বড় ধরনের কোনো সংশোধন করা হয়নি। ২০০৪ ও ২০০৭ সালে ছোটখাটো কিছু পরিবর্তন আনলেও গত বছর নভেম্বরে মোট ৩টি অধ্যায়কে সংশোধন করে দেশটির শূরা কাউন্সিল। সংশোধনানুযায়ী, সৌদি আরবে শিশুর জন্ম দিলে শিশুর পাশাপাশি মায়েরও দেশটির নাগরিকত্ব দেওয়ার আইন পাশ হয়। তার এক বছর পর এই সপ্তাহে এই আইনের ফলে সন্তান জন্মদান সূত্রে নাগরিকত্বপ্রাপ্ত নারীদের কর্মক্ষেত্রে বৈষম্য হবে না।