sentbe-top

দক্ষিণ কোরিয়ায় বিপাশা হায়াতের একক চিত্র প্রদর্শনী

অভিনেত্রী বিপাশা হায়াত এখন দক্ষিণ কোরিয়ায়। অভিনয়ে এখন তিনি অনিয়মিত। মাঝেমধ্যে দেখা মিলে তার চিত্রনাট্যকার হিসেবে। তবে চারুকলার ছাত্রী বিপাশা সাম্প্রতিক সময়ে নিয়মিতই সময়  দেন চিত্রকলার চর্চায়। এরইমধ্যে চিত্রশিল্পী বিপাশার অনেক সুনামও ছড়িয়েছে।

বেশ কিছু একক ও যৌথ প্রদর্শনীও হয়েছে তার আঁকা ছবি নিয়ে। সেই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলের এলভিএস গ্যালারিতে শুরু হয়েছে এই শিল্পীর একক চিত্র প্রদর্শনী। প্রদর্শনীতে অংশ নিতে বর্তমানে সিউলেই রয়েছেন বিপাশা।

গত ১৪ ডিসেম্বর থেকে এটি শুরু হয়েছে চিত্র প্রদর্শনী। চলবে এ মাসের পুরোটা সময়। চলবে ‘দু’সপ্তাহের এ প্রদর্শনী। তবে বিপাশা হায়াত শেষ পর্যন্ত থাকবে না।শিগগিরই চলে যাবেন দেশে। বিদেশের মাটিতে  এটি তার দ্বিতীয় একক প্রদর্শনী। বিপাশা হায়াতের প্রথম একক চিত্র প্রদর্শনী হয়েছিল রোমে।’

গতকাল তিনি বাংলাদেশী ব্যাবসয়ী হাবিল উদ্দিনের আমন্ত্রণে তার রেস্টুরেন্ট গেঞ্জেসে লাঞ্চ করলেন এবং তার সাথে ছিলেন হংগিক ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক ইয়ুন জিন সোপ, তার স্ত্রী এবং বাংলাদেশী শীক্ষার্থী মনিরউরজ্জামান মনির, আমিরা হক এশা, আল জাবের ফয়সাল, সপ্রতি সময়ে কোরিয়ায়  আশা দুইজন মুখাভিনেতা মির লোকমান, সাইফুল্লাহ সাদিক এবং বিসিকে প্রেসিডেন্ড হাবিল উদ্দিন। বিপাশা হায়াত

নব্বই দশকে টিভি পর্দায় তুমুল জনপ্রিয়তা পাওয়া বিপাশা শুধু শখের বসেই ছবি আঁকেন না। তিনি এ বিষয়ে পড়াশোনাও করেছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার মাস্টার্স প্রোগ্রামের ডিগ্রিও আছে সব্যসাচী এই তারকার।

 

sentbe-top