Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

তৃতীয় বিয়ে করতে চাওয়াই কি আমার অপরাধ?

imran-khanসামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইমরানের তৃতীয় বিয়ে নিয়ে ব্যাপক গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ার পর মঙ্গলবার পাকিস্তানের সাবেক এ ক্রিকেট তারকা এবং তেহরিক-ই-ইনসাফের চেয়ারম্যান ইমরান খান টুইটারে একাধিক টুইট করেন। তার বিয়ের গুজব ছড়ানোর পেছনে দেশটির সাবেক প্রধানমন্ত্রী পাকিস্তান মুসলিম লীগের প্রধান নওয়াজ শরীফ জড়িত বলে অভিযোগ করেন ইমরান।

chardike-ad

টুইটে তিনি বলেন, গণমাধ্যমে জঘন্য এ প্রচারণা নওয়াজ শরীফ ও মীর শাকিল-উর-রহমানের নেতৃত্বে পরিচালিত হয়েছে। এতে তিনি বিরক্ত নন বলেও জানান।

ইমরান খান বলেন, গত তিনদিন ধরে আমি বিস্মিত। আমি কি কোনো ব্যাংক লুট করেছি? অথবা দেশের সম্পদ চুরি করে মানি লন্ডারিং করেছি? অথবা মানুষ হত্যা করে মডেল টাউন গড়েছি? অথবা রাষ্ট্রের গোপন তথ্য ভারতের কাছে দিয়ে দিয়েছি? আমি এসবের কিছুই করিনি। তবে মনে হচ্ছে, বিয়ে করতে চেয়ে বড় ধরনের এক অপরাধ করেছি।

ক্রিকেট তারকা থেকে রাজনীতিক বনে যাওয়া ইমরান খান অপর এক টুইটে বলেন, এ গুজবে তার সন্তানদের নিয়ে তিনি উদ্বিগ্ন। একই সঙ্গে যাকে ঘিরে গুজব ছড়িয়ে পড়েছে সেই বুশরা বেগমের পরিবারের ব্যাপারেও তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফের ব্যাপারে তিনি বলেন, আমি শরীফকে গত ৪০ বছর ধরে চিনি। আমি তার ব্যক্তিগত জীবনের সবকিছুই জানি। কিন্তু তার এসব ঘটনা কখনোই বিস্তারিত প্রকাশ করবো না।

এদিকে, নওয়াজ শরীফ বলেছেন, তিনি কখনোই অন্যের ব্যক্তিগত ব্যাপারে নাক গলাননি। তবে ইমরান খান যদি বিয়ে করে থাকেন, তাহলে তা প্রকাশ এবং স্বীকার নেয়া উচিত তার।

রোববার পিটিঅাই এক বিবৃতিতে জানায়, বুশরা মানেকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিয়েছেন ইমরান খান। তবে অত্যন্ত সংরক্ষণশীল পরিবারের এ নারী তার বিয়ের প্রস্তাবে এখনো সাড়া দেননি। সন্তান এবং পরিবারের অন্যান্যদের সঙ্গে আলোচনার পর এ ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবেন বলে জানিয়েছেন বুশরা।

৪০ বছর বয়সী মানেকা পাকিস্তানের ওয়াত্তু উপজাতির। এর আগে ইসলামাবাদের জ্যেষ্ঠ কাস্টমস কর্মকর্তা খাওয়ার ফরিদ মানেকাকে বিয়ে করেছিলেন তিনি।

সূত্র: ডন