sentbe-top

স্কুলে নির্বিচারে গুলি ঠেকাতে শিক্ষকদের কাছে অস্ত্র রাখতে চান ট্রাম্প

trumpযুক্তরাষ্ট্রের স্কুলগুলোতে ঢুকে নির্বিচার গুলির ঘটনা রুখতে শিক্ষকদের কাছে অস্ত্র রাখার প্রস্তাব দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গত সপ্তাহে ফ্লোরিডার একটি স্কুলে ১৭ জন শিক্ষার্থী নিহত হওয়ার পর বেঁচে যাওয়া শিক্ষার্থী ও নিহতদের স্বজনরা র‌্যালি করে ট্রাম্পের সঙ্গে দেখা করতে গেলে তিনি এ প্রস্তাব দেন। খবর বিবিসি।

ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেন, সেদিন যদি শিক্ষকদের কাছে অস্ত্র থাকতো তাহলে এ ঘটনা তারা অত্যন্ত সুন্দরভাবে দ্রুত শেষ করে ফেলতো। ফলে গোপনে কেবল অস্ত্র বহন নয় সেটা চালানোর জন্য তাদেরকে প্রশিক্ষণও দেওয়া দরকার।ট্রাম্পের এ প্রস্তাবকে হাত তালি দিয়ে স্বাগত জানিয়েছেন উপস্থিত শিক্ষার্থী ও অভিভাবকেরা।

ট্রাম্প আরো বলেন, আমরা পূর্বের এ ধরনের কার্যকলাপ খতিয়ে দেখার ক্ষেত্রে আরও কঠোর হবো। যারা অস্ত্র কিনবে তাদের মানসিক স্বাস্থ্যের পরীক্ষার ক্ষেত্রেও জোর দেওয়া হবে।শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সাথে সাক্ষাতের আগে ওয়াশিংটনে শত শত শিক্ষার্থী র‌্যালি নিয়ে হোয়াইট হাউসে পৌঁছায়। এরপর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওই ঘটনায় বেঁচে যাওয়া শিক্ষার্থী ও স্বজনদের সাথে এক্সিকিউটিভ ম্যানসনের ডাইনিং হলে সাক্ষাৎ করেন। ঘণ্টাব্যাপী ওই সাক্ষাতে ট্রাম্প অস্ত্র কেনার ক্ষেত্রে সবকিছু যাচাই করে দেখারও প্রতিশ্রুতি দেন।

অবশ্য শিক্ষকদের কাছে অস্ত্র রাখার পক্ষে যে মত ট্রাম্প দিয়েছেন দিয়েছেন। সেটা অবশ্য শক্তিশালী অস্ত্র সমর্থক গ্রুপ ন্যাশনাল রাইফেল এসোসিয়েশন অনেক আগে থেকেই দিয়ে আসছে।গত সপ্তাহে ফ্লোরিডার মেজরিটি ডগলাস হাইস্কুলে ঢুকে পড়ে সাবেক এক শিক্ষার্থীর নির্বিচারে চালানো গুলিতে নিহত হয় ১৭ জন। যাকে বেশকিছুদিন আগে স্কুল থেকে বহিস্কার করা হয়েছিল। এ ঘটনায় ওই শিক্ষার্থীকে আটকও করেছে পুলিশ। ফলে এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি ঠেকানোর দাবিতে ওই ঘটনায় বেঁচে যাওয়া শিক্ষার্থী ও স্বজনেরা ফ্লোরিডা থেকে ওয়াশিংটনে আসেন।

sentbe-top