sentbe-top

দুই ম্যাচ নিষিদ্ধ চান্ডিমাল, মাহমুদউল্লাহর জরিমানা

mahmudullah-and-chandimalবাংলাদেশের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ম্যাচের সময় স্লো ওভার রেটের দায়ে দুটি টি-টোয়েন্টি ম্যাচের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেন শ্রীলঙ্কার অধিনায়ক দিনেশ চান্ডিমাল। একই সঙ্গে শ্রীলঙ্কা দলের প্রতিটি সদস্যকে তাদের ম্যাচ ফি’র ৬০ ভাগ করে জরিমানা করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে একই দোষে সাব্যস্ত করে ম্যাচ ফি’র ২০ ভাগ জরিমানা করা হয়েছে।

আইসিসির পক্ষ থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কার মধ্যকার অনুষ্ঠিত টি-টোয়েন্টি ম্যাচটিতে নির্ধারিত সময়ে শ্রীলঙ্কা চার ওভার কম বোলিং করেছে। আইসিসির নিয়মে নির্ধারিত সময়ের চেয়ে ২ ওভার বেশি বোলিং করা হলে দলের প্রতিটি খেলোয়াড়ের ১০ ভাগ করে ম্যাচ ফি এবং অধিনায়কের ২০ ভাগ ম্যাচ ফি জরিমানা করা হয়। ২ ওভারের বেশি বোলিং করলে প্রতি ওভারের জন্য প্রতিটি সদস্যকে ২০ ভাগ করে ম্যাচ ফি জরিমানা করা হবে। একই সঙ্গে অধিনায়ক ২টি বহিষ্কার পয়েন্ট অর্জন করবেন।

২ সাসপেনশন পয়েন্ট মানে হলো একটি টেস্ট কিংবা ২টি ওয়ানডে কিংবা ২টি টি-টোয়েন্টি ম্যাচে নিষেধাজ্ঞা। তবে যে ফরম্যাটই আগে আসবে, সেই ফরম্যাটেই শাস্তি কার্যকর হবে। সে কারণেই আগামী ২ টি-টোয়েন্টি ম্যাচে খেলতে পারবেন না দিনেশ চান্ডিমাল। সে সঙ্গে তার দলের প্রতিটি সদস্যকে গুণতে হচ্ছে ৬০ ভাগ করে ম্যাচ ফি জরিমানা। ১২ মার্চ এবং ১৬ মার্চ ভারত ও বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই ম্যাচে খেলতে পারছেন না চান্ডিমাল। শ্রীলঙ্কা ফাইনালে উঠলে চান্ডিমাল খেলতে পারবেন সেই ম্যাচ।

চান্ডিমাল তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ স্বীকার করে নেননি। এ কারণে, ম্যাচ শেষে রেফারি ক্রিস ব্রড শুনানির আয়োজন করেন। সেখানেই তিনি এ শাস্তির ঘোষণা দেন।

ওই ম্যাচেই বাংলাদেশ নির্ধারিত সময়ের চেয়ে ১ ওভার বেশি বল করেছে। যে কারণে বাংলাদেশ দলের প্রতিটি সদস্যের জরিমানা করা হয়েছে ১০ ভাগ ম্যাচ ফি এবং অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহর জরিমানা করা হয়েছে ২০ ভাগ ম্যাচ ফি। মাহমুদউল্লাহ দোষ স্বীকার করে নিয়েছেন এবং শাস্তিও মেনে নিয়েছেন। জাগোনিউজ

sentbe-top