দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতো মেরিন ইউনিট চালু করল জাপান

marine-unit
জাপানের মেরিন ইউনিটের সদস্যদের একাংশ

দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর প্রথমবারের মতো জাপান একটি মেরিন ইউনিট চালু করেছে। দেশ রক্ষায় এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছে টোকিও।

জাপানের উপ প্রতিরক্ষামন্ত্রী তোমোহিরো ইয়ামামোতো শনিবার বলেন, “জাপানের চারপাশে বেড়ে চলা প্রতিরক্ষা ও নিরাপত্তা বিষয়ক জটিল অবস্থার প্রেক্ষাপটে আমাদের দেশ রক্ষায় কঠিন এ সিদ্ধান্ত নিতে হয়েছে।”

মেরিন ইউনিট চালু উপলক্ষে কিইয়ুশু দ্বীপের কাছে সাসেবো সামরিক ঘাঁটিতে অ্যামফিবিয়াস র‍্যাপিড ডিপ্লয়মেন্ট ব্রিগেডের ১,৫০০ সদস্যকে মোতায়েন করা হয়। তাদেরকে প্রচণ্ড ঠাণ্ডা ও ঝড়ো আবহাওয়ার মধ্যে সেখানে রাখা হয়। তারা ২০ মিনিট ধরে দুর্গম দ্বীপ দখলের মহড়া পরিচালনা করে।

মেরিন ব্রিগেড হচ্ছে উদীয়মান কোনো নৌবাহিনীর জন্য সর্বাধুনিক উপাদান যাতে থাকে হেলিকপ্টারবাহী যুদ্ধজাহাজ, উভচর জাহাজ, সেনা বহনকারী ওসপ্রে বিমান এবং উভচর যুদ্ধযান।

পূর্ব চীন সাগরের কয়েকটি দ্বীপ নিয়ে চীনের সঙ্গে জাপানের গত কয়েক বছর দ্বন্দ্ব চলে আসছে। এ প্রেক্ষাপটে জাপানের মেরিন ইউনিট চালু করার আলাদা গুরুত্ব রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।