‘চোখ বেঁধে আমাদের তুলে নেয়া হয়’

চোখ বেঁধে ডিবি কার্যালয়ে তুলে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন কোটা সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের তিন নেতা। তারা তিনজনই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। আজ সোমবার বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় লাইব্রেরীর সামনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করেন তারা। এর আগে সকাল ১১টায় সংবাদ সম্মেলনে একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত সংবাদের প্রতিবাদ ও মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে কর্মসূচি ঘোষণা করেন তারা। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আহত ছাত্রদের দেখতে যাওয়ার সময় সাদা পোষাকের কয়েকজন পুলিশ কমিটির তিন নেতা যুগ্ম সমন্বয়ক মোহাম্মদ রাশেদ খাঁন, নুরুল হক নূর ও ফারুক হাসানকে জোর করে একটি সাদা মাইক্রোতে তুলে নেয়। কিছুক্ষণ পর তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

ফিরে এসে আবার সংবাদ সম্মেলন করে তিন নেতা। সংবাদ সম্মেলনে তিন নেতাই বলেন, জবরদস্তি করে পুলিশ তাদের মাক্রোবাসে তুলে নেয়। গাড়িতে উঠিয়ে সবার চোখ বেঁধে ফেলা হয়। পরে ডিবি কার্যালয়ে নিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সূত্রঃ মানবজমিন।