sentbe-top

শাহজালাল বিমানবন্দরে সিলিং খসে পড়লো নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের মাথায়

airport-officeহযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের সিলিং খসে পড়ছে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইউসুফের মাথায়। সেসময়ে কোর্টের উপস্থিত থাকা আর্মড পুলিশ ব্যাটেলিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুর রহমান সরে যাওয়ায় অল্পের জন্য রক্ষা পান। মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় বিমানবন্দর থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

বিমানবন্দর থানা সূত্রে জানা গেছে, কোর্টের কর্মকর্তা সেলিম মুন্সি বিমানবন্দরে থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। থানার ডায়েরিতে উল্লেখ করা হয়, গত ২ বছর যাবত হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের অফিস কক্ষে সিলিং খুলে পড়ে যায়। এগুলো মেরামত করার জন্য বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের নির্বাহী প্রকৌশলী, সিভিল ও সহকারী প্রকৌশলী সিভিলকে বার বার তাগিদসহ বিমানবন্দরের পরিচালককে অনুরোধ করা হয়। প্রায় একবছর পূর্বে পরিচালক (হশাআবি) সহ-নির্বাহী প্রকৌশলী পরিদর্শন করে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দেন।

airport-officeকিন্তু, এখন পর্যন্ত এ অফিসের সিলিংসহ ইলেকট্রিক কাজ করা হয় নাই। আজ (২২ মে) আনুমানিক ২টার দিকে ৮ আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আবদুর রহমান হযরত শাহাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে এলে তার মাথার ওপর সিলিং খুলে পড়তে দেখে তিনি তাৎক্ষণিক সরে যান। পরে ঐ সিলিংটি লাগাতে গিয়ে অপর একটি সিলিং খুলে ওই আদালতের বিচারকের মাথার ওপরে পড়ে। সিলিংটি খাড়াভাবে পড়লে তিনি গুরুতর আহত হতে পারতেন।

airport-officeবিমানবন্দরসূত্রে জানা গেছে, বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের প্রকৌশল বিভাগের গাফলতির কারণে মেরামত হচ্ছে না ম্যাজিস্ট্রেট কোর্টের সিলিং। মঙ্গলবারের ঘটনায় বিমানবন্দর থানা পুলিশ তদন্তে এসে প্রকৌশল বিভাগের বিভিন্ন কর্মচারীকে বিষয়টি সম্পর্কে জিজ্ঞাসাবাদ করেন।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইউসুফ বলেন, এ বিষয়টি ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছিল দীর্ঘদিন আগে থেকেই, কিন্তু কোনও সমাধান হয়নি। প্রায় সময়ই সিলিং খুলে পড়ার ঘটনাও ঘটেছে। অদৃশ্য কারণে সিলিং মেরামতের কাজ হচ্ছে না।

সূত্র- বাংলা ট্রিবিউন

sentbe-top