cosmetics-ad

দক্ষিণ কোরিয়ায় জিয়াউর রহমানের শাহাদাৎ বার্ষিকী’র আলোচনা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত

বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের ৩৭তম শাহাদাৎ বার্ষিকী উপলক্ষে গত রবিবার কোরিয়ার ওসান সিটি বি এন পির উদ্যোগে আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন কোরিয়া বি এন পির সভাপতি হারুন অর রশিদ হিরন, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক মনির পাটোয়ারী, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহ সভাপতি জুবিলি জিয়া। আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহ সভাপতি আবুল মনসুর মামুন, সহ সভাপতি সৈয়দ মোহাম্মদ গোলাম সারোয়ার ।

প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন কোরিয়া বি এন পির যুগ্ম সম্পাদক মাশরাফি বিন মুর্তজা। বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন সহ সাধারণ সম্পাদক নাজমুল হুদা। উক্ত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ওসান সিটি বি এন পির প্রধান উপদেষ্টা মোহাম্মদ রুবেল । সভা পরিচালনা করেন ওসান সিটি বি এন পির সদস্য সচিব নাজমুল কবির।

পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতে মাধ্যমে অনুষ্ঠান শুরুর পর পরই মহান মুক্তিযুদ্ধে শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং বাংলাদেশে গনতন্ত্র পুনরুদ্ধারের স্বপ্ন পুরুষ মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার জন্য দোয়া ও মুনাজাত করা হয় ।

উক্ত আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কোরিয়া বি এন পির সভাপতি হারুন অর রশিদ হিরন বলেন ৩০ শে মে বাঙ্গালী জাতির জীবনের এক কালো অধ্যায়। শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান বহু দলীয় গনতন্ত্রের প্রবর্তন করে যখন দেশকে উন্নয়নের পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে ঠিক তখনই ১৯৮১ সালের ৩০ মে দেশী বিদেশী ষড়যন্ত্রকারী ও বিপদগামী কিছু সেনা সদস্যদের হাতে নির্মম ভাবে শহীদ হয়।

ক্ষমতায় টিকে থাকার জন্য আওয়ামী লীগ যত রকমের অপরাধ রয়েছে তা করছে। গুম, ক্রসফায়ার ও পঙ্গু করছে বিরোধী দলের নেতা কর্মীদের। বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় জড়িয়ে জেলে আটকে রাখা হয়েছে । আমরা মনে করি তিনি ন্যায়বিচার পাননি। আবার তাঁকে জামিনও দেয়া হচ্ছে না। আইনের ন্যূনতম অধিকার থেকে তাঁকে বঞ্চিত করা হচ্ছে। খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেওয়া না হলে দেশে বিদেশে কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে।

বিশেষ অতিথি সাংগঠনিক সম্পাদক মনির পাটোয়ারী তার বক্তব্যে বলেন আজকের এই শোক দিবসে সবাই দ্বিধা বিভেদ ভুলে দেশে বিদেশে জাতীয়তাবাদী দলের নেতা কর্মীদের ঐক্যবদ্ধ হয়ে অবৈধ সরকারকে বিদায় করে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে । জিয়াউর রহমানকে হত্যার মাধ্যমে জাতীয়তাবাদী আদর্শকে মুছে ফেলার ষড়যন্ত্র করা হয়েছিল। আর এখন খালেদা জিয়া ও তারেক রহমানকে রাজনীতি থেকে নির্বাসন দেওয়ার ষড়যন্ত্র চলছে। এ ষড়যন্ত্র অত্যন্ত পরিকল্পিত। সবাইকে এ ব্যাপারে সতর্ক থাকতে হবে।

দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দিয়ে বাংলাদেশের জনগণের ভোটাধিকার ফিরিয়ে দিতে হবে। কোরিয়া বি এন পির নেতৃবৃন্দ আরো বলেন গুম, হত্যা, মিথ্যা মামলা দিয়ে স্বৈরাচারী অবৈধ ভাবে ক্ষমতা দখলকারী সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। বাকশালী কায়দায় অবৈধ সরকার দেশ চালানোর যে প্রক্রিয়া শুরু করেছে তা বেশী দিন চিরস্থায়ী হবে না। দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি দিতে হবে এবং তারুণ্যের প্রতীক তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের করতে হবে।

অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন কোরিয়া বি এন পির সহ সভাপতি আবুল মনসুর মামুন, দপ্তর সম্পাদক নুর মোহাম্মদ আজিজ মৃর্ধা প্রমুখ। অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ইনছন সিটি বি এন পির সভাপতি মোহাম্মদ জলিল, যুগ্ম সম্পাদক জলিল মিয়া, কুনসান সিটি বি এন পির সভাপতি হাবিবুর রহমান কাঞ্চন, ইনছন সিটি বি এন পির সিনিয়র সহ সভাপতি মহসিন আলী,হোয়াসং ও ফারহান সিটি বি এন পির সভাপতি জুয়েল খান, সাধারণ সম্পাদক আরিফুল ইসলাম আবির, শাহাজাহান সিরাজ, মোহাম্মদ সোহেল, রফিকুল ইসলাম সাজ্জাদ,জামান, মহসিন গাজী দিন ইসলাম, কবির হোসেন,লোকমান হোসেন সহ বিভিন্ন সিটি কমিটি ও যুবদল স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতৃবৃন্দ।