sentbe-top

বড় জয়ে সিরিজে টিকে রইল ভারত

england-indiaপ্রথম দুই টেস্টেই হার। ভারতের পিঠ একেবারে দেয়ালে ঠেকে গিয়েছিল। ট্রেন্ট ব্রিজে তৃতীয় টেস্ট হারলেই সিরিজ হাতছাড়া বিরাট কোহলির দলের। এমন কঠিন সমীকরণকে মাথায় নিয়ে দারুণভাবে ঘুরে দাঁড়াল সফরকারিরা। ইংল্যান্ডকে ২০৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়ে পাঁচ ম্যাচ সিরিজে এখন ২-১ ব্যবধানে পিছিয়ে কোহলির দল।

ট্রেন্ট ব্রিজ টেস্টে শুরু থেকেই অন্য এক ভারতকে দেখা গেছে। ফলে ব্যাকফুটে ছিল ইংল্যান্ডই। চতুর্থ ইনিংসে তাদের সামনে ৫২১ রানের প্রায় অসম্ভব এক লক্ষ্য ছুঁড়ে দেয় বিরাট কোহলির দল। চতুর্থ দিন শেষে ইংল্যান্ডের স্কোর ছিল ৯ উইকেটে ৩১১ রান। জয়টা বলতে গেলে নিশ্চিতই হয়ে ছিল ভারতের। সেই নিশ্চিত জয়টা তারা তুলে নিয়েছে পঞ্চম দিনে ১৭টি বল করে। ইংল্যান্ড দ্বিতীয় ইনিংসে অলআউট হয়েছে ৩১৭ রানে।

বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৬২ রানের মধ্যে ৪টি উইকেট খুইয়ে বসেছিল ইংল্যান্ড। সেই বিপর্যয় থেকে দলকে উদ্ধার করেন বেন স্টোকস আর জস বাটলার। পঞ্চম উইকেটে ১৬৯ রানের বড় জুটিতে তো ইংল্যান্ডকে অসম্ভব জয়েরও স্বপ্ন দেখাচ্ছিলেন তারা। তবে ১০৬ রান করে বাটলার ফেরার পর সেই স্বপ্ন ভাঙতে সময় নেয়নি।

বাকিদের নিয়ে লড়াই চালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করেছেন স্টোকস। তবে সেটা শুধুই সম্মান বাঁচানোর। ৬২ রান করে তিনি সাজঘরে ফেরেন। পঞ্চম দিনে আদিল রশিদ অপরাজিত ছিলেন ৩৩ রানে। ভারতের পক্ষে ৮৫ রানে ৫টি উইকেট নেন জাসপ্রিত বুমরাহ। ইশান্ত শর্মা নেন ২ উইকেট।

এর আগে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে প্রথম ইনিংসে ৩২৯ রান করে ভারত। উদ্বোধনী জুটিতে লোকেশ রাহুল এবং শিখর ধাওয়ান তুলেন ৬০ রান। এরপর ক্রিস ওকসের বোলিং তোপের মুখে পড়ে ৮২ রানে তিন উইকেট হারায় ভারত। আজিঙ্কা রাহানে এবং বিরাট কোহলির ১৫৯ রানের জুটির সুবাদে ঘুরে দাঁড়ায় ভারত। ৮১ রান করেন আজিঙ্কা রাহানে। ৯৭ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলে বিদায় নেন বিরাট কোহলি। তিন রানের জন্য শতক পাননি বিরাট কোহলি। তিনটি করে উইকেট নেন জেমস অ্যান্ডারসন, ক্রিস ওকস এবং স্টুয়ার্ট ব্রড।

জবাবে ব্যাটিংয়ে এসে মাত্র ১৬১ রান করতে সক্ষম হয় ইংল্যান্ড। শুরুতে দুই ওপেনার অ্যালেস্টার কুক এবং কিটন জেনিংস দলকে ৫৪ রানের ভিত গড়ে দেন। তবে তা কাজে লাগাতে পারেনি মিডল অর্ডারের ব্যাটসম্যানরা। ইংলিশদের এক সেশনেই অলআউট করে দেন হার্দিক পান্ডিয়া। পাঁচ উইকেট শিকার করেন এ পেসার। ইনিংসে দলীয় সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন জস বাটলার। প্রথম ইনিংসে ১৬৮ রানের বড় লিড পায় ভারত।

দ্বিতীয় ইনিংসে এসেও দৃঢ়তার পরিচয় দেন ভারতের ব্যাটসম্যানরা। উদ্বোধনী জুটিতে ৬০ রানের পর শিখর ধাওয়ান ও চেতেশ্বর পুজারা মিলে যোগ করেন ৫১ রান। ৭২ রানের ইনিংস খেলেন চেতেশ্বর পুজারা। পুজারা এবং অধিনায়ক বিরাট কোহলি মিলে যোগ করেন ১১৩ রান।

প্রথম ইনিংসের শতকের আক্ষেপ দূর করেন বিরাট কোহলি। টেস্ট ক্যারিয়ারের ২৩ তম শতক তুলে নেন তিনি। শেষে ৫২ বলে ৫২ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলেন হার্দিক পান্ডিয়া। ৭ উইকেটে ৩৫২ রান করে ইনিংস ঘোষণা করে ভারত।

সংক্ষিপ্ত স্কোরঃ

ভারত (প্রথম ইনিংস) ৩২৯/১০, ৯৪.৫ ওভার
কোহলি ৯৭, রাহানে ৮১, ধাওয়ান ৩৫
অ্যান্ডারসন ৩/৬৪, ব্রড ৩/৭২, ওকস ৩/৭৫

ইংল্যান্ড (প্রথম ইনিংস) ১৬১/১০, ৩৮.২ ওভার
বাটলার ৩৯, কুক ২৯, জেনিংস ২০
পান্ডিয়া ৫/২৮, ইশান্ত ২/৩২, বুমরাহ ২/৩৭

ভারত (দ্বিতীয় ইনিংস) ৩৫২/৭, ডিক্লেয়ার্ড ,১১০ ওভার
কোহলি ১০৩, পুজারা ৭২, হার্দিক ৫২*
রশিদ ৩/১০১, স্টোকস ২/৬৮, ওকস ১/৪৯

ইংল্যান্ড (দ্বিতীয় ইনিংস) ৩১৭/১০, ৯ ওভার, লক্ষ্যঃ ৫২১
বাটলার ১০৬, স্টোকস ৬২, রশিদ ৩৩*
বুমরাহ ৫/৮৫, শর্মা ২/৭০

ম্যাচসেরাঃ বিরাট কোহলি

sentbe-top