সাকিবের আঙুল আর কখনো শতভাগ ঠিক হবে না!

shakibআঙুলের চোট নিয়ে এশিয়া কাপের ফাইনাল না খেলেই দেশে ফিরে এসেছিলেন সাকিব আল হাসান। এতটাই চোট ছিল, দেশে ফিরেই দ্রুত অস্ত্রোপচারও করাতে হয়েছিল তাঁকে। বাঁ হাতের আঙুলের এই চোটের অবস্থা জানতে গতকাল রাতে অস্ট্রেলিয়া গেছেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার। তবে দেশ ছাড়ার আগে জানিয়েছেন একটি হতাশার কথা, তাঁর এই আঙুল নাকি কখনোই শতভাগ ঠিক হবে না।

সেই হতাশা বুকে চেপে গতকাল শুক্রবার রাতে অস্ট্রেলিয়ার উদ্দেশে ঢাকা ছেড়ে যান সাকিব। প্রায় এক সপ্তাহ মেলবোর্নে কাটাবেন সাকিব। তারপর অস্ত্রোপচার করাতে যাবেন যুক্তরাষ্ট্রে। ঢাকা ছাড়ার আগে তিনি বলেন, ‘আমাদের জন্য এশিয়া কাপ গুরুত্বপূর্ণ ছিল, তা নিয়ে দ্বিমত পোষণ করার কারণ নেই, তাই খেলতে হয়েছিল আমাকে। তারপরও ফিজিও সঙ্গে আলাপ করেছিলাম, কেউই চিন্তা করেনি ইনফেকশনটা হয়ে যাবে। এখন অস্ট্রেলিয়ায় যাচ্ছি, যদি আরো ভালো চিকিৎসা পাওয়া যায়। তাহলে হয়তো আরো দ্রুত সেরে উঠতে পারব। তবে এখন মূল কাজ হচ্ছে ইনফেকশন দূর করা, সেটা ঠিক হলেই বোঝা যাবে সারতে কতটা সময় লাগবে।’

আর ইনফেকশনই সাকিবের জন্য সবচেয়ে দুশ্চিন্তার, ‘আসলে ইনফেকশনই আমার কাছে সবচেয়ে বড় দুশ্চিন্তার জায়গা। তা যতক্ষণ পর্যন্ত জিরো পার্সেন্টে না আসে, ততক্ষণ পর্যন্ত কেউ অস্ত্রোপচার করবে না। সেখানে হাত দিলে হাড়ে চলে যাবে, আর হাড়ে চলে গেলে পুরো হাতটাই নষ্ট হয়ে যাবে!’

তাতে আঙুলটা আর শতভাগ ঠিক হবে না বলেও মনে করেন সাকিব, ‘এই আঙুল আর কখনোই শতভাগ ঠিক হবে না। এটা নরম হাড়, এটা কখনোই জোড়া লাগার সম্ভাবনা নেই। পুরোপুরি ঠিক হবে না। এমন অবস্থায় এনে দেওয়া হবে যেন ব্যাটটা ভালোভাবে ধরতে পারব।’

সাকিব এই চোট সারতে এখন ছয় থেকে আট সপ্তাহ সময় লাগবে। তাই ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজে তো খেলা হবেই না, ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে সিরিজও মিস করেত পারেন তিনি।