‘বাতাসে নিঃশ্বাস নিলেও প্রবাসীদের কর দিতে হবে’

kuwaitপ্রবাসীদের নিঃশ্বাসের ওপর কর দিতে হবে, মধ্যপ্রাচ্যের দেশ কুয়েতের এক নারী সংসদ সদস্য সাফা আল-হাশেম এমন দাবি তুলেছেন। কুয়েতি নাগরিকদের ওপর করারোপের একটি পরিকল্পনার প্রতিবাদ করে তিনি এমন দাবি করেছেন।

‘প্রবাসীদের সব কিছুর জন্য অর্থ দিতে হবে : চিকিৎসা সেবা, অবকাঠামো এবং আমি আবারও বলছি বাতাসে নিঃশ্বাস নেয়ার জন্যও কর দিতে হবে’ বলেন কুয়েতের ৫০ সদস্যের জাতীয় পরিষদের একমাত্র নারী সদস্য।

তিনি আরও বলেন, ‘কুয়েতিদের ওপর নতুন করারোপ করার আগে দেশটিতে থেকে প্রবাসীদের বিতাড়ন করতে হবে। তার ভাষায় মাত্র ১৪ লাখ কুয়েতিদের দেশে ৩২ লাখ প্রবাসী রয়েছে, আগে তাদের ব্যাপারে ব্যবস্থা নেয়া দরকার।’

কুয়েতি নাগরিকদের ওপর নতুন করারোপের চিন্তাভাবনা করে কুয়েত সরকার সম্প্রতি একটি উন্নয়ন পরিকল্পনার প্রজ্ঞাপন জারি করে। সরকারের ওই প্রস্তাবের চরম বিরোধী নারী আইনপ্রণেতা সাফা আল হাশেম। পার্লামেন্টে চিৎকার করে তিনি ওই প্রস্তাবের বিরোধিতা করেন।

সাফা আল হাশেম বলেন, ‘কুয়েতি নাগরিকদের ওপর নতুন কোনও করারোপ করতে হলে তা আমার মৃতদেহের ওপর করতে হবে। সরকারকে আগে ১৪ হাজার বেকার কুয়েতির চাকরির ব্যবস্থা এবং দেশে থাকা এক লাখ ১০ হাজারের বেশি অশিক্ষিত প্রবাসীর সমস্যা সমাধান করতে হবে। কেন দেশটিতে প্রবাসীদের রয়েছে সেটি নিয়েও প্রশ্ন তোলেন এই নারী এমপি।

কুয়েতের জাতীয় সংসদ সম্প্রতি সেদেশের বেকার নাগরিকদের কর্মসংস্থানের জন্য একটি কমিটি গঠন করে। কমিটিকে বলা হয়, দরকার হলে প্রবাসীদের ছাটাই করে কুয়েতি নাগরিকদের জন্য চাকরির ব্যবস্থা করতে হবে। ২০১৭ সালেও তিনি একই ধরনের দাবি তুলেছিলেন। তার ভাষায় বিদেশী আতঙ্ক থেকে নয় বরং দেশপ্রেমের কারণে তিনি এমন দাবি তুলেছেন।