sentbe-top

কথা রাখলেন অনন্ত জলিল

ananta‘দ্য স্পাই’ সিনেমার জন্য ট্যালেন্ট হান্ট এর আয়োজন করেছিলেন অনন্ত জলিল। কিন্তু সেই সিনেমার আগেই ‘দিন দ্য ডে’ সিনেমা দিয়ে ফিরছেন তিনি। নতুন ছবির সংবাদ শুনে প্রতিযোগিতার মাধ্যমে উঠে আসা নতুন মুখদের অনেকেরেই মন খারাপ করেছিলেন। অনন্তের সঙ্গে আরও কাজ করা হবে না এমনটা ভেবে বসেছিলেন তারা। কিন্তু কথা রাখলেন অনন্ত জলিল। আগে ভাগে ‘দিন দ্য ডে’ সিনেমাতেই তাদের সুযোগ করে দিচ্ছেন তিনি।

শনিবার দুপুরে সেই ট্যালেন্ট হান্ট টিম নিয়ে এক সভার আয়োজন করেন তিনি। সভার একটি ছবি পোস্ট করেন নিজের ফেসবুক পেজে। তবে এখনই কারো নাম ঘোষণা করেননি। অনন্ত জলিল জানালেন, যারা তার নতুন সিনেমায় অভিনয় করার সুযোগ পাচ্ছেন শিগগিরই আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের নাম ঘোষণা করা হবে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নিক্সন, রাসেল হাবিব, সাব্বির আহমেদ, ইউসূফ আলী খান, মিল্টন, মাহিন, তৃপ্তি, সালমা প্রমুখ।

‘দিন- দ্য ডে’ ছবিটি ইরানের সঙ্গে যৌথ প্রযোজনায় ছবিটি নির্মিত হবে। ছবিটি পরিচালনা করবেন ইরানের স্বনামধন্য পরিচালক মুর্তজা অতাশ জমজম। বাংলাদেশ থেকেও একজন পরিচালক থাকবেন। ছবিতে বাংলাদেশ থেকে অভিনয় করবেন অনন্ত জলিল ও বর্ষা। তাদের সঙ্গে ছবির নতুন আকর্ষণ হিসেবে দেখা যাবে সুমন ফারুককে। বাংলাদেশের পাশাপাশি ইরানেরও একঝাঁক জনপ্রিয় অভিনেতা-অভিনেত্রীও এ ছবিতে অভিনয় করবেন। এছাড়া লেবাননেরও কয়েকজন বিখ্যাত অভিনেতা ও অভিনেত্রীর ছবিটিতে অভিনয় করার কথা রয়েছে।

বাংলাদেশের সিনেমায় প্রথমবারের মতো ইরান যুক্ত হচ্ছে এ ছবির মাধ্যমে। পাঁচ হাজার বছরেরও বেশি সময় থেকে ইরানের ইতিহাস, ঐতিহ্য, সংস্কৃতি পৃথিবীর সভ্যতা বিস্তারে অসাধারণ ভূমিকা রেখেছে। ইসলাম পরবর্তী সময়ে ইরান বিশ্ব মুসলিম তথা বিশ্ব পরাশক্তিদের কাছে অনমনীয় শক্তি হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে। বিশেষ করে সিনেমা জগতে ইরান এগিয়েছে বিস্ময়করভাবেই। দেশটির ছবি ইতোমধ্যে অস্কার ও কানের মত ফিল্ম ফ্যাস্টিভালে আধিপত্য বিস্তার করতে সক্ষম হয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় এবার বাংলাদেশের অনন্ত জলিল নিজেকে ইরানি ফিল্মের আঙ্গিকে নতুন রূপে তুলে ধরার প্রত্যয় নিয়ে এগিয়ে এসেছেন।

অনন্ত জলিলের ব্যক্তিগত মেকআপম্যান ও মনির বিউটি লঞ্জের কর্ণধার মনির হোসেন জানান, ছবিটির শুটিং ডিসেম্বরের ২০-২৫ তারিখের মধ্যেই শুরু হবে। নভেম্বরের শেষদিকে হবে মহরত। ইরানি ও আরবিয় অ্যাকশনের মিশেলে নির্মিত এ ছবিটি অনন্ত জলিলকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন ইরানি পরিচালক মুর্তজা অতাশ জমজমের উপদেষ্টা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মুমিত আল রশিদ।

তিনি বলেন, ছবিটির মূল ভাষা বাংলা রেখে ফারসি, আরবি ও ইংরেজিতে ডাবিং করে একই সময়ে বাংলাদেশসহ ইরানের বিভিন্ন সিনেমা হল ও বিভিন্ন দেশে প্রদর্শনের ব্যবস্থা করা হবে। বাংলাদেশের পাশাপাশি গল্পের প্রয়োজনেই ‘দিন- দ্য ডে’ ছবির শুটিং হবে ইরান, লেবানন ও সিরিয়ায়। ইরানের বিখ্যাত নগরী ইস্পাহান, শিরাজ থেকে শুরু করে লেবাননের বৈরুতের অসাধারণ দৃশ্য যেমন দেখা যাবে, তেমনিভাবে আইএসআই জঙ্গিদের হাতে ধ্বংসপ্রাপ্ত সিরিয়ার দামেস্কের আশেপাশের বিভিন্ন শহর, আলেপ্পো, হাম্মাম নগরীর হৃদয়বিদারক দৃশ্য দেখেও শিহরিত হবেন দর্শকরা।

দ্বিপাক্ষিক দীর্ঘ আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে, ইরানি পরিচালকের নির্মাণে ও গল্পের অসাধারণ বিন্যাসের মধ্য দিয়ে অ্যাকশনধর্মী এই ছবিটি ইসলামের মূলশিক্ষা ‘শান্তি ও পারস্পারিক বন্ধুত্ব’ এবং বিশ্বব্যাপী ইসলামের মহান বাণী প্রচার করবে।

আইএসআই জঙ্গিদের বিশ্বব্যাপী বীভৎস সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে এবং ইসলামের নামে সকল প্রকার ধর্মীয় সন্ত্রাস ও উস্কানির বিরুদ্ধে সোচ্চার ভূমিকার চিত্র দেখা যাবে ছবিটিতে। এছাড়া ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে ইসলামে সবার সমান অধিকারের বিষয়টিও ছবিতে ফুটে উঠবে।

sentbe-top