মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী ছাত্রের অভিনব প্রতারণা

malaysia-bdমালয়েশিয়ার সেগি কলেজে পড়ুয়া বাংলাদেশী এক ছাত্রের অভিনব প্রতারণার অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। জানা যায়, চাঁদপুর সদর বিপনী বাগ এলাকার সৌদি প্রবাসী মোস্তফার ছেলে মালয়েশিয়া দামানসারা সেগি কলেজ এর ছাত্র আবু জাফর জনি। মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসী ও বাংলাদেশ থেকে ঘুরতে স্ব-দেশিদের টার্গেট করে দীর্ঘদিন থেকে প্রতারণার ফাঁদ পেতে অর্থ উপার্জন করে আসছে।

প্রতারণার কৌশল হিসাবে জনি বিভিন্ন মডেলের গাড়ি মাসিক ও সাপ্তাহিক ভাড়া দেবার নাম করে ব্যাবহার করছে মালয়েশিয়ার অনলাইন গাড়ি বুকিং কোম্পানির সো-কার (SOCAR) নামক অ্যাপস।

প্রতারক জনি বিভিন্ন লোকের পাসপোর্ট ব্যবহার করে SOCAR এ রেজিস্ট্রেশন করে। এরপর আগ্রহী গ্রাহকদের SOCAR এর গাড়ির লোগো সাদা টাফ দিয়ে কৌশলে ঢেকে রেখে  নিজের গাড়ি দাবি করে।

একদিন বা দুইদিনের জন্য নিজেই SOCAR থেকে মাত্র ১০০/২০০ রিংগিত খরচ করে ভাড়া নিয়ে পরে যারা Socar গাড়ি সম্পর্কে জানেনা বা বুঝেনা তাদের টার্গেট করে মাসিক চুক্তিতে ২০০০ হাজার থেকে ৫০০০ হাজার রিংগিতে ভাড়া দিয়ে মোবাইলে SOCAR apps install করে SHAREIT এর মাধ্যমে গাড়ি Lock ও Unlock পদ্ধতি মোবাইলে দেখিয়ে দিয়ে গাড়ি রেখে টাকা নিয়ে চলে যায়।

পরে মোবাইলে গাড়ি লোকেশন খুঁজে জনি নিজের মোবাইলের অ্যাপস ব্যবহার করে গাড়ি নিয়ে পালিয়ে যায়। এ ছাড়া বিভিন্ন জনের পাসপোর্ট ব্যবহার করে আবার বুকিং করে একইভাবে প্রতারণা করে আসছে জনি।

SOCAR একটি অনলাইন গাড়ি ব্যবহার করার অ্যাপস যা মালয়েশিয়া সহ উন্নত বিশ্বে বর্তমান সময়ে আধুনিক গাড়ি সেবা যা বাংলাদেশী অনেকেই জানেনা। আর এই না জানার সুযোগটা কাজে লাগাচ্ছে এই প্রতারক জনি।

জনির এই প্রতারণার সাথে মালয়েশিয়ার লোকাল ইন্ডিয়ানরা জড়িত। এ ছাড়া জনি মেয়ে ব্যবহার করে যাকে নিজের বৌ বলে দাবি করে। জনির প্রতারণার শিকার ভুক্তভুগীরা মালয়েশিয়ান পুলিশের কাছে একাধিক অভিযোগও দায়ের করেছেন বলছেন ভূক্তভোগীরা।এছাড়া বিভিন্ন সময় মালয়েশিয়া স্টুডেন্ট ভিসায় লোকাল আনার নামেও প্রতারণার অভিযোগ রয়েছে এই জনির নামে।

এদিকে বাংলাদেশ থেকে পড়তে আসা অনেক শিক্ষার্থী, পর্যটক, মালয়েশিয়া বসবাসকরি সকল প্রবাসীকে প্রতারক জনি থেকে সতর্ক থাকার জন্য বাংলাদেশের কমিউনিটি আহবান জানিয়েছেন।

সূত্র: প্রবাসীর দিগন্ত