sentbe-top

চীনের মোকাবেলায় সামরিক সহযোগিতা জোরদার করছে ফ্রান্স ও জাপান

war-bimanচীনকে মোকাবেলা করার লক্ষ্যে ফ্রান্স এবং জাপান সামরিক সহযোগিতা জোরদার করার বিষয়ে একমত হয়েছে। পূর্ব এবং দক্ষিণ চীন সাগরে বেইজিংয়ের ‘একতরফা পদক্ষেপ’ রুখে দিতে দেশ দু’টি নিজেদের মধ্যে এ সামরিক সহযোগিতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। শুক্রবার জাপান এবং ফ্রান্সের পররাষ্ট্র এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রীরা ফ্রান্সের উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় উপকূলীয় শহর ব্রেস্টে ‘টু প্লাস টু’ শীর্ষক নিরাপত্তা বৈঠকে এ ঘোষণা দেন।

ফ্রান্সের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জিন ইয়েভস লি দ্রায়ান এবং প্রতিরক্ষামন্ত্রী ফ্লোরেন্স পার্লি তাদের জাপানি সমকক্ষ তারো কানো এবং তাকাশি আইওয়া এক যৌথ বিবৃতিতে বলেন, পূর্ব এবং দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের জোরালো উপস্থিতি মোকাবেলার লক্ষ্যে এ সহযোগিতা গড়ে তোলা হবে। যৌথ বিবৃতিতে চার মন্ত্রী আরো বলেন, বিরোধপূর্ণ পানি সীমায় উত্তেজনা উস্কে দেয় এমন একতরফা সামরিক পদক্ষেপের বিরুদ্ধে আমাদের জোরালো অবস্থান রয়েছে।

পূর্ব চীন সাগরে অবস্থিত একটি দ্বীপপুঞ্জের মালিকানা নিয়ে জাপান ও চীনের মধ্যে দীর্ঘ দিনের বিরোধ রয়েছে। জাপানে সেটিকে বলা হয় ‘সেনকাকু’। আর চীনে পরিচিত ‘দায়াউস; নামে। বর্তমান জাপান এ দ্বীপপুঞ্জ নিয়ন্ত্রণ করছে। কিন্তু চীনও এর মালিকানা দাবি করছে। এমনকি আধিপত্য ধরে রাখতে উভয় দেশই ওই অঞ্চলে প্রায়ই টহল কার্যক্রম চালায়।

সৌজন্যে- পার্সটুডে

sentbe-top