cosmetics-ad

আফ্রিকায় বাংলাদেশির হাতে বাংলাদেশি খুন

africa-saroar

আফ্রিকার দেশ সোয়াজিল্যান্ডে বাংলাদেশির হাতে নিজ বাসায় খুন হয়েছেন সারোয়ার হোসেন নামে অপর এক বাংলাদেশি। মঙ্গলবার রাতে টাকা-পয়সা লেনদেন নিয়ে কথাকাটির একপর্যায়ে দুই বাংলাদেশি তাকে হত্যা করে। নিহত সারোয়ার নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌর এলাকার ১নং ওয়ার্ডের মৃত ছাদু মিয়ার পুত্র।

জানা গেছে, জীবিকার তাগিদে ও পরিবারে আর্থিক স্বচ্ছলতা আনতে ২০০৯ সালে আফ্রিকায় পাড়ি জমান সারোয়ার হোসেন। এরপর ২০১১ সালে পার্শ্ববর্তী দেশ সোয়াজিল্যান্ডে গিয়ে ব্যবসা শুরু করেন। সেখানে বেগমগঞ্জ উপজেলার আমিন বাজার এলাকার দেলোয়ার হোসেন নামে বাংলাদেশি এক যুবকের সঙ্গে পরিচয় হয়। দু’জনে একই এলাকার হওয়ায় তাদের মধ্যে সখ্যতা গড়ে উঠে ও মাঝে মধ্যে অর্থ লেনদেন হতো।

সম্প্রতি সারোয়ার বাড়িতে পাঠানোর জন্য দেলোয়ারকে ১৩ লাখ টাকা দেন। কিন্তু দেলোয়ার সেই টাকা ঠিকমতো সারোয়ারের বাড়িতে পৌঁছে দেননি। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির একপর্যায়ে মঙ্গলবার দেলোয়ার ও তার এক বন্ধু সারোয়ারকে এলোপাতাড়ি পিটিয়ে ও কুপিয়ে হত্যা করে বাসায় থাকা নগদ অর্থ, মোবাইল ফোন ও মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়।

পর দিন সকালে দোকানের কর্মচারীরা বাসায় গিয়ে অনেক ডাকাডাকির পর সারোয়ারের কোনো সাড়া শব্দ না পেয়ে পুলিশে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে সারোয়ারের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

নিহতের ছোট ভাই ফারুক গণমাধ্যমকে জানান, দেলোয়ার একজন চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তার বিরুদ্ধে বেগমগঞ্জ মডেল থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এ কারণে সে পালিয়ে সোয়াজিল্যান্ড গিয়ে আত্মগোপন করে। সেখানেও নানা অপরাধের সঙ্গে জড়িত। সারোয়ারকেও সে হত্যা করে ওই শহর থেকে পালিয়ে গেছে।

সৌজন্যে- জাগো নিউজ