cosmetics-ad

পীযুষ বন্দোপাধ্যায় ও তার সহযোগীদের গ্রেপ্তারের দাবী

pijushইসলামের বিধান দাড়ি রাখা, টাখনুর ওপর কাপড় পড়াকে ‘জঙ্গি লক্ষণ’ বলে বিজ্ঞাপন প্রচার করায় ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ নামক সংগঠনের আহ্বায়ক পীযুষ বন্দোপাধ্যায়ের বিচার দাবী করেছে বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টি।

আজ (১৪ মে) এক বিবৃতিতে বলা হয়, ৯৫ ভাগ মুসলমানের দেশে ইসলামের বিধান পালনকে ‘জঙ্গি হওয়ার লক্ষণ’ বলে পীযুষরা চরম ধৃষ্টতা দেখিয়েছে। পীযুষদের মনে রাখা উচিৎ, এই দেশ মুসলমানদের, এদেশে ইসলামের বিরুদ্ধে কথা বলে, ইসলামের বিধানকে কটাক্ষ কেউ টিকে থাকতে পারেনি, পীযুষরাও পারবেনা।

পীযুষ বন্দোপাধ্যায়ের ভারতীয় এজেন্ডা বাস্তবায়নে মাঠে নেমেছে বলে অভিযোগ করে বিবৃতিতে আরো বলা হয়, পীযুষ ও তার সাঙ্গোপাঙ্গরা ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদী আরএসএস-এর এজেন্ডা বাস্তবায়নের কর্মসূচী হিসেবে এসব কাজ করে যাচ্ছেন। ভারতের উগ্র হিন্দুত্ববাদের এই এজেন্টদের আইনের আওতায় এনে মুসলমানদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করার দায়ে কঠোর শাস্তির ব্যবস্থা করতে হবে।

এছাড়াও আলেম নামধারী যেসব লোক পীযুষদের সাথে বসে এসব ষড়যন্ত্র করছে, তাদেরও জনগণের সামনে জবাবদিহিতা করতে হবে। এই দেশের জনগণ তাদের ক্ষমা করবেনা।

আমরা প্রশাসনকে বলব, পীযুষ ও তার সহযোগীদের আইনের আওতায় আনুন। তাঁদের গ্রেপ্তার করুন। খুঁজে বের করুন এদের উদ্দেশ্য কি। কেন তারা ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ’ নাম দিয়ে দেশের সম্প্রীতি নষ্ট করতে চাইছে।

বিবৃতিদাতারা হলেন, পার্টির ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাওলানা ফজলুর রহমান, মহাসচিব মাওলানা আবদুল মাজেদ আতহারী, সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব ও ঢাকা মহানগর সভাপতি মাওলানা মুসা বিন ইজহার।