cosmetics-ad

চাষাবাদের জন্য প্যারোলে মুক্তি চান ধর্ষক রাম রহিম

gurmeet-ram-rahim

নিজের জমিতে চাষাবাদ করতে প্যারোলে মুক্তির আবেদন করেছেন ধর্ষণ ও খুনের মামলায় দোষী সাব্যস্ত ভারতের হরিয়ানা প্রদেশের বিতর্কিত ধর্মগুরু গুরমিত রাম রহিম সিং। জেলের কুঠুরি থেকে ৪২ দিনের জন্য অব্যাহতি চেয়েছেন তিনি; যাতে হরিয়ানার সিরসায় নিজের জমিতে চাষাবাদ করতে পারে। তার আবেদন খতিয়ে দেখছে হরিয়ানা প্রশাসন।

এই মুহূর্তে হরিয়ানার রোহতকের সুনারিয়া জেলে বন্দি রয়েছেন ডেরা সাচা সওদার সাবেক প্রধান ৫১ বছর বয়সী ধর্ষক ধর্মগুরু রাম রহিম। সেখান থেকেই প্যারোলে জামিনের আবেদন জানিয়েছেন তিনি। তার আবেদন হাতে পেয়ে ইতোমধ্যে সিরসা জেলা প্রশাসনকে চিঠি দিয়েছেন সুনারিয়া জেলের সুপারিনটেন্ডেন্ট। রাম রহিমকে প্যারোলে মুক্তি দেয়া আদৌ সম্ভব হবে কিনা তা জানতে চেয়েছেন তিনি।

গত ১৮ জুন সিরসার উপনগরপাল অশোক গর্গ এবং হরিয়ানার ডিজি (কারা) সেলভরাজকে চিঠি দেন সুনারিয়া জেলের সুপারিনটেন্ডেন্ট সুনীল কুমার। তিনি জানান, কারাগারে খারাপ আচরণ করেন না রাম রহিম। নিয়মও ভাঙেননি। তবে বিষয়টি নিয়ে গণমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলতে অস্বীকার করেছেন তিনি।

তবে সিরসার পুলিশ সুপার রাজেশ কুমার পিটিআইকে জানান, ‘ইতোমধ্যে রাজস্ব দফতরের সঙ্গে যোগাযোগ করেছি আমরা। সিরসায় রাম রহিমের নামে কত জমি রয়েছে তা জানতে চেয়েছি। তবে এখনও পর্যন্ত বিস্তারিত তথ্য হাতে পাইনি।’

২০১৭ সালের আগস্টে দু’টি ধর্ষণ মামলায় দোষী সাব্যস্ত হয় রাম রহিম। এতে ২০ বছরের জেল হয় তার। অন্যদিকে, দেশটির সাংবাদিক রামচন্দ্র ছত্রপতিকে খুনে এ বছর জানুয়ারিতে তাকে দোষী সাব্যস্ত করে পঞ্চকুলার বিশেষ সিবিআই আদালত। সেই মামলায় ১৬ বছরের সাজা হয় তার।

এর আগে, চলতি বছরের এপ্রিলে চার সপ্তাহের জন্য প্যারোলের আবেদন করেছিলেন রাম রহিম। এক দত্তক কন্যার বিয়েতে যাবেন বলে সেবার জানিয়েছিলেন তিনি। পরে সেই আবেদন প্রত্যাহার করে নেন রাম রহিম। আনন্দবাজার।