cosmetics-ad

হাসিনা-খালেদাকে এরশাদের দাওয়াত

hasina-khaleda-ershad

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদ, প্রাক্তন বিরোধী নেতা ও বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়াকে ইফতারের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

২১ জুন রোববার রাজধানীর হোটেল ওয়েস্টিনে রাজনীতিক, কূটনীতিকসহ পেশাজীবীদের সন্মানে ইফতার পার্টির আয়োজন করেছেন প্রাক্তন এ রাষ্ট্রপতি। ওই ইফতার পার্টিতে অংশ নেওয়ার জন্য তিন শীর্ষ রাজনীতিককে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে দাওয়াতপত্র পৌঁছে দেন দলের মহাসচিব জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু। একই দিন দলের পক্ষ থেকে বর্তমান বিরোধীনেতা রওশন ও প্রাক্তন বিরোধীনেতা বেগম খালেদা জিয়ার কাছে দাওয়াতনামা পৌঁছানো হয়। এ ছাড়া আওয়ামী লীগের শীর্ষ পর্যায়ের নেতা, জাতীয় সংসদের স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার, মন্ত্রিসভার সব সদস্যকে এরশাদের এই ইফতার পার্টিতে দাওয়াত দেওয়া হয়েছে। একইভাবে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়া ছাড়াও দলটির ১০ শীর্ষ পর্যায়ের নেতার কাছে দাওয়াতপত্র পৌঁছানো হয় বলে জানা গেছে।

ওয়েস্টিনে এরশাদের এই ইফতারে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রফেসর এ কিউ এম বদরুদ্দোজা চৌধুরী, জাসদ সভাপতি হাসানুল হক ইনু, বাংলাদেশের ওয়ার্কাস পার্টির সভাপতি রাশেদ খান মেনন, কৃষক শ্রমিক পার্টির সভাপতি বঙ্গবীর কাদের সিদ্দিকী, জাসদ সভাপতি আসম আব্দুর রব, জাতীয় পার্টি (জেপি) চেয়ারম্যান আনোয়ার হোসেন মঞ্জুসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের শীর্ষনেতা, বাংলাদেশে নিযুক্ত সব দেশের রাষ্ট্রদূত, শীর্ষ পর্যায়ের বুদ্ধিজীবী, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, চিকিৎসকসহ পেশাজীবী প্রতিনিধিকে দাওয়াত দেওয়া হয়েছে বলে এরশাদ ঘনিষ্ঠ দলের এক প্রভাবশালী প্রেসিডিয়াম সদস্য জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ‘এবার বড় আকারে স্যারের ইফতার পার্টির আয়োজন করা হয়েছে। দেশের প্রায় সব দলের শীর্ষ পর্যায়ের রাজনীতিক, কূটনীতিকসহ পেশাজীবীদের কাছে ইতিমধ্যে প্রাক্তন রাষ্ট্রপতির পক্ষে দাওয়াতপত্র পৌঁছানো হয়েছে। তবে জামায়াতকে দাওয়াত দেওয়া হয়নি।’