cosmetics-ad

ইন্টারনেটে ভিক্ষা করে কোটিপতি!

dollar

একে ধূর্ত বলবেন, না বুদ্ধিমান, তা আপনাদের ব্যাপার। কিন্তু ইন্টারনেটে বোধ হয় সবই সম্ভব! না-হলে এভাবেও ধনী হওয়া যায়?

সামান্য একটি বিজ্ঞাপন। বিজ্ঞাপনের নামে ভিক্ষাও বলা যায়। বিজ্ঞাপনের অকপট বয়ান, ‘আমাকে মিলিয়নেয়র করুন। যে যতটুকু পারেন, সাহায্য করুন।’ এটা ছিল ওই ব্যক্তির অবসরকালীন পরিকল্পনা।

৪০ বছর বয়সে এই প্রচার শুরু করেন। ১৫ বছরেই তিনি মিলিয়নিয়র! ইন্টারনেটে ক্রাউডফান্ডিং-এর বিজ্ঞাপন দেন। বিশ্ববাসীর কাছে আর্থিক সাহায্য চেয়ে থাকেন। কেউ চিকিৎ‌সার জন্য, পড়াশোনার খরচ চালানোর জন্য কেউ বা সমাজসেবার জন্য- নানা বিধ কারণে।

কিন্তু নিজেকে ধনী করার জন্য ক্রাউডফান্ডিং! হ্যাঁ, ইন্টারনেটে এরকমই বিজ্ঞাপন দিয়ে এক ব্যক্তি ধনকুবের হয়ে গেলেন। তার পরিকল্পনা ছিল, জনগণের কাছে ভিক্ষা চেয়ে ১০ বছরে যতটুকু আয় হয়, সেটাই লাভ। কিন্তু মিলিয়নেয়ার হয়ে যাবেন, স্বপ্নেও ভাবেননি।

WeMadeAMillionaire.com বলে একটি সাইটে বিজ্ঞাপন দেন ওই ব্যক্তি। সাইটটি ব্যক্তির নাম প্রকাশ করেনি। কোনো প্রতারণা নয়, শুধু লিখেছিলেন, আমাকে মিলিয়নিয়ার করুন। আমি খুব গরিব। এরপর অনেকেই যত্‍‌সামান্য দান করতে থাকেন ওই ব্যক্তিকে। দানের পরিমাণ বেড়ে গত ১৫ বছরে ১ মিলিয়ন বা ১০ লাখ ডলার পেরিয়ে গেছে।