sentbe-top

সাঙ্গাকারার অজানা কিছু তথ্য ও রেকর্ড

sangakaraগলে কলম্বো টেস্ট দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানালেন শ্রীলংকার অন্যতম সেরা খেলোয়াড় কুমার সাঙ্গাকারা। এর সাথে ইতি টানলেন ১৫ বছরের বর্ণাঢ্য ক্রিকেট ক্যারিয়ারের। এই ১৫ বছরের অনেক কিছুই অর্জন করেছেন এই বাঁহাতি স্টাইলিস্ট ব্যাটসম্যান।

২০০০ সালের ৫ জুলাই গলে পাকিস্তানের বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে নামেন কুমার সাঙ্গাকারা। নিজের প্রথম ম্যাচে ৩৫ রান করেন তিনি।

ওয়ানডে অভিষেকের ১৫ দিন পর টেস্ট অভিষেক ঘটে সাঙ্গাকারার। ২০ জুলাই গলেই দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম টেস্ট খেলতে নামেন সাঙ্গা। নিজের প্রথম টেস্ট ইনিংসে ২৩ রান করেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান।

ওয়ানডেতে প্রথম শতকটি পেতে দীর্ঘদিন অপেক্ষা করতে হয় সাঙ্গাকারাকে। অভিষেকের ৭৯ ইনিংস পর প্রথম তিন অংক স্পর্শ করার স্বাদ নেন তিনি। ২০০৩ সালে শারজাহে পাকিস্তানের বিপক্ষে ১১১ বলে ১০০ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন সাঙ্গাকারা।

ওয়ানডের জন্য দীর্ঘদিন অপেক্ষা করতে হলেও টেস্ট সেঞ্চুরি পেতে মোটেও বেশি দিন প্রহর গুণতে হয়নি সাঙ্গাকারাকে। অভিষেকের ১৭তম ইনিংসেই সেঞ্চুরির স্বাদ নেন তিনি। ২০০১ সালের ১৪ আগস্ট গল টেস্টে ভারতের বিপক্ষে ২২৬ বলে অপরাজিত ১০৫ রান করেন সাঙ্গাকারা।

গত বিশ্বকাপে ওয়ানেড ক্রিকেট বিদায় জানান সাঙ্গাকারা। ১৫ বছরের ক্রিকেট ক্যারিয়ারে ৪০৪ ম্যাচে ১৪,২৩৪ রান করেন তিনি। গড় ৪১ দশমিক ৯৮। সেঞ্চুরি রয়েছে ২৫টি। হাফ-সেঞ্চুরি রয়েছে ৯৩টি। সর্বোচ্চ স্কোর ১৬৯।

ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ রান ভারতের শচীন টেন্ডুলকারের। ৪৬৩ ম্যাচে ১৮,৪২৬ রান করেছেন টেন্ডুলকার। এই তালিকার দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন সাঙ্গাকারা। হাফ-সেঞ্চুরির দিক দিয়েও দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন সাঙ্গা। সর্বোচ্চ ৯৬টি হাফ-সেঞ্চুরি করেছেন টেন্ডুলকার।

ওয়ানডেতে সর্বোচ্চ রানের তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে থাকলেও টেস্টে সাঙ্গাকারার অবস্থান পাঁচ নম্বরে। ১৩৪ ম্যাচে ১২,৪০০ রান করেছেন তিনি। গড় ৫৭ দশমিক ৪০। সেঞ্চুরি ৩৮টি। হাফ-সেঞ্চুরি ৫২টি। সর্বোচ্চ স্কোর ৩১৯।

ওয়ানডেতে না পারলেও টেস্ট ক্যারিয়ারে ১১ বার ডাবল-সেঞ্চুরি করেছেন সাঙ্গাকারা। এতে রেকর্ড বইয়ে তার নামটা ঝলঝল করছে। কারণ, সবচেয়ে বেশি ডাবল-সেঞ্চুরির করার তালিকায় দ্বিতীয় স্থানে রয়েছেন সাঙ্গাকারা। প্রথম স্থানে রয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার স্যার ডন ব্র্যাডম্যান। তার ডাবল-সেঞ্চুরি ১২টি।

ওয়ানডেতে সেঞ্চুরি করার দিকদিয়ে একটি রেকর্ডের একক মালিক সাঙ্গাকারা। বিশ্বের একমাত্র ব্যাটসম্যান হিসেবে টানা চার ওয়ানডে ম্যাচে সেঞ্চুরির রেকর্ড গড়েছেন তিনি। এই রেকর্ডটি সম্প্রতি সময়েই করেছেন সাঙ্গাকারা। গত বিশ্বকাপে বাংলাদেশ, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও স্কটল্যান্ডের সেঞ্চুরি করে রেকর্ড বইয়ে নাম উঠান সাঙ্গাকারা।

জুটিতে রেকর্ডের পাতায় সবার উপরে রয়েছে সাঙ্গাকারার নাম। টেস্টে যেকোন উইকেট জুটিতে বন্ধু মাহেলা জয়াবর্ধনেকে নিয়ে সর্বোচ্চ রান করেছেন সাঙ্গাকারা। ২০০৬ সালে কলম্বোতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তৃতীয় উইকেটে ৬২৪ রান করেছিলেন সাঙ্গাকারা।

টুয়েন্টি-টুয়েন্টিতেও বেশ পারদর্শী ছিলেন সাঙ্গাকারা। গত টি-২০ বিশ্বকাপের ফাইনালে ৩৫ বলে ৫২ রানের নান্দনিক ইনিংস খেলে প্রথমবারের মতো লংকানদের শিরোপা জয়ের স্বাদ দেন সাঙ্গাকারা। ২০০৬ সালে এই ছোট ফরম্যাটে অভিষেকের পর ৫৬ ম্যাচ খেলেছেন তিনি। ৮টি হাফ-সেঞ্চুরিতে ১,৩৮২ রান করেছেন সাঙ্গাকারা। গড় ৩১ দশমিক ৪০।

শুধুমাত্র ব্যাট হাতেই নয় উইকেটরক্ষক হিসেবেও সুনাম রয়েছে সাঙ্গাকারার। সুনামটা বেশি ওয়ানডেতেই। তাতে রেকর্ড বইয়ের সবার উপরেই আছেন সাঙ্গা। ৪০৪ ম্যাচের ৩৫৩ ইনিংসে ৪৮২টি ডিসমিসাল রয়েছে সাঙ্গাকারার। ৩৮৩টি ক্যাচ ও ৯৯টি স্ট্যাম্পিং করেছেন তিনি। দ্বিতীয় স্থানে থাকা এডাম গিলক্রিস্টের ডিসমিসাল ২৮৭ ম্যাচে ৪৭২টি। উইকেটরক্ষক হিসেবে ক্যাচ ধরার ক্ষেত্রে তৃতীয় স্থানে থাকলেও স্ট্যাম্পিং করার ক্ষেত্রে সবার উপরেই রয়েছেন সাঙ্গা। আর ১৩৪ টেস্টে ১৫১টি ডিসমিসাল রয়েছে তার। এর মধ্যে ক্যাচ ১৩১টি ও স্ট্যাম্পিং ২০টি। টি-২০ ফরম্যাটে ডিসমিসালের ক্ষেত্রে বিশ্বের মধ্যে সাঙ্গাকারার অবস্থান তৃতীয়। ৫৬ ম্যাচে মোট ৪৫টি ডিসমিসাল করেছেন তিনি। এর মধ্যে ২৫টি ক্যাচ ও ২০টি স্ট্যাম্পিং করেছেন সাঙ্গাকারা।

sentbe-top