cosmetics-ad

স্ত্রীর পরামর্শে পদত্যাগ করলেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী

newziland

আকস্মিকভাবে পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন নিউজিল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রী জন কি। টানা আট বছর সরকার প্রধানের দায়িত্ব পালন করে আগামী ১২ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিকভাবে পদত্যাগ করবেন তিনি। রোববার (৪ ডিসেম্বর) রাজধানী ওয়েলিংটনে সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে এ পরিকল্পনার কথা জানান প্রধানমন্ত্রী জন।

দেশটির গণমাধ্যমের মতে, ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগ করছেন প্রধানমন্ত্রী জন। তবে পদত্যাগের বিষয়ে তাকে পরামর্শ দিয়েছেন স্ত্রী ব্রোনাঘ। জনপ্রিয়তা থাকতে থাকতেই প্রধানমন্ত্রীর পদ ছেড়ে দিতে তিনি স্বামীকে উৎসাহিত করেছেন।

প্রধানমন্ত্রী পদ ছেড়ে দেওয়া নিজের জীবনের সবচেয়ে কঠিন সিদ্ধান্ত বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করেছেন জন। পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বর্তমান উপ-প্রধানমন্ত্রী বিল ইংলিশকে সমর্থন দেওয়ার কথা জানান তিনি। নিজ থেকেই এ পদে বিলের নাম প্রস্তাব করবেন বলেও এসময় মন্তব্য করেন।

অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুল প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী হিসেবে জনের প্রতিটি দিনই প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ ছিল। তবে সবার আগে তিনি একজন পিতা ও স্বামী। তার এ সিদ্ধান্তের প্রতি আমি শ্রদ্ধাশীল।’

প্রসঙ্গত, ২০০৬ সালে নিউজিল্যান্ডের ক্ষমতাসীন দল ন্যাশনাল পার্টির নেতা নির্বাচিত হন জন। দুই বছরের মাথায় তিনি দেশটির প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন। ২০১৪ সালের সাধারণ নির্বাচনে জয়ের ফলে তৃতীয়বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হন। স্বচ্ছ ভাবমূর্তির রাজনীতিবিদ হিসেবে দেশের মানুষের কাছে তিনি বেশ জনপ্রিয়। তাই আকস্মিক পদত্যাগের এ সিদ্ধান্তে অনেকেই বিস্মিত।

সূত্র: বিবিসি