sentbe-top

অবসরের পরিকল্পনা জানালেন মাশরাফি

mashrafe‘যতো দিন উপভোগ করব, খেলে যাবো’ কয়েকদিন আগেও বলেছেন মাশরাফি বিন মর্তুজা। তবে মাস দুই পর ৩৪তম জন্মদিনের কেক কাটতে যাওয়া মাশরাফি যে আর লম্বা সময় খেলতে পারবেন না সেটাই বাস্তবতা। অর্থাৎ ‘বিদায়’ বলে দেওয়ার সময়টা খুব বেশি দূরে নয়। প্রশ্ন হচ্ছে, অবসর নেওয়ার পর কী নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন মাশরাফি?

বাংলাদেশ ক্রিকেটের সবচেয়ে জনপ্রিয় নাম মাশরাফি। শুধু ক্রিকেট নয়, সব মিলিয়ে মাশরাফিকে দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় বললেও হয়তো খুব বেশি মানুষ আপত্তি তুলবেন না। সে হিসেবে রাজনীতিতে গেলে বড় একটা সুবিধা পাবেন মাশরাফি। এই সুবিধা কি কাজে লাগাবেন মাশরাফি? অর্থাৎ অসবরের পর কি রাজনীতিতে যোগ দিবেন?

মাশরাফির উত্তর, রাজনীতি নয়, খেলাধুলা নিয়েই থাকতে চান সব সময়। একটি অনলাইন গণমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ওয়ানডে দলের অধিনায়ক বলেছেন, ‘অনেকেরই কাছে এমন (রাজনীতিতে যোগ দেওয়া) মনে হয়েছে। আমি আগেও বলেছি, আমি কোন কিছুই পরিকল্পনা করে করি না। এই মুহূর্তে আমি খেলাটা উপভোগ করছি, তাই খেলে যেতে চাই। খেলা ছাড়ার পর আমার ইচ্ছা আছে খেলার জগতে থাকা বা খেলার জন্য ভালো কিছু করা। কিন্তু সেসব নির্ভর করছে, ওই সময়টা আমার কেমন যাবে তার উপর।’

মাশরাফি খেলার সাথেই থাকুন, ক্রিকেট সমর্থকদের অন্তত এমনটাই প্রত্যাশা। দেড় যুগ ধরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলছেন। শত প্রতিকূলতা জয় করে খেলা চালিয়ে যাচ্ছেন। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের এতো অভিজ্ঞতা ও প্রতিকূলতা জয় করে এগিয়ে চলার গল্পগুলো ছড়িয়ে দেওয়ার সুযোগ পেলে ক্রিকেটের বড় উপকারই হবে।

sentbe-top