cosmetics-ad

বড় ধরনে বিপদে পড়বে উত্তর কোরিয়া: ট্রাম্প

trump

যুক্তরাষ্ট্রের প্রশান্ত মহাসাগরের গুয়াম ঘাঁটিতে হামলা চালালে উত্তর কোরিয়া বড় ধরনে বিপদে পড়বে বলে হুশিয়ার করে দিয়েছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। গতকাল শুক্রবার নিউ জার্সিতে তার ব্যক্তিগত গল্প ক্লাবে বসে এই হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন ট্রাম।

এছাড়া গুয়ামে অবস্থান করা মার্কিন নাগরিক ও সেনাদের আশ্বস্ত করে তিনি বলেন, আমি কথা দিচ্ছি, বিশ্বাস করেন, যুক্তরাষ্ট্রের সব নাগরিকই নিরাপদে থাকবেন।

তিনি উত্তোর কোরিয়ার ওপর আরো কঠোর অবরোধের হুশিয়ারিাও দেন সে সময়। উত্তর কোরিয়ার এই হামলার হুমকি ইস্যুতে চীনের প্রেসিডেন্ট জি জিংপিং এর সঙ্গেও কথা বলবেন বলে জানান ট্রাম্প।

তিনি আশা প্রকাশ করেন, চীনের সঙ্গে আলোচনার করে বিষয়টির একটি ইতিবাচক সমাধানে যাওয়া সম্ভব। আসন্ন সমস্যায় প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের চাইতে শান্তপূর্ণ সমাধান আরও কেউই করতে পারেবন না বলেও মনে করেন ট্রাম্প।

এদিকে এতদিন উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক অস্ত্রের সক্ষমতা নিয়ে সংশয় থাকলেও যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দা বিভাগ শেষ পর্যন্ত জেনেছে ‘কম দুরত্বে, পারমাণবিক হামলা’র জন্য প্রস্তুত হচ্ছে উত্তর কোরিয়া।

ওয়াশিংটন পোস্টের খবরে দেশটির গোয়েন্দা সংস্থার বরাতে বলেছে, উত্তর কোরিয়া এখন এমন এক ধরনে পারমাণবিক ডিভাইস বানাতে পারে যা সাধারণ একটি মিসাইলের মধ্যে দিয়েই নিক্ষেপ করা যায়।

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে হামলা চালাতে পারে এমন সক্ষমতাসহ দেশটির নেতা কিম জং উনের হাতে এখন ৬০ পারমাণবিক বোমা আছে বলেও জেনেছেন গোয়েন্দারা।

এই অবস্থায় উত্তর কোরিয়া গুয়ামে সত্যিসত্যি হামলা চালাতে পারে বলে মনে করছে অনেকে। তবে কেউ কেউ মনে করছেন উত্তর কোরিয়ার হাতে আসলে ততো বেশি পামণবিক অস্ত্র নেই।

উল্লেখ, গত বৃহস্পতিবার উত্তর কোরিয়ার তরফ থেকে বলা হয়েছে, তারা চলতি আগষ্ট মাসের মাঝামাঝি সময়ের মধ্যেই ওই ঘাঁটিতে চারটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালাবে।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থার বাত দিয়ে বিবিসি বলছে, কৌশলগতভাবে যুক্তরাষ্ট্রের জন্য গুরুত্বপূর্ণ গুয়াম এলাকায় মাঝারি থেকে দূর পাল্লার রকেট নিক্ষেপ করার পরিকল্পনা করছে পিয়ংইয়ং।

খবরে বলা হয়েছে, দেশটির সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের অনুমোদন পেলে জাপানের ওপর দিয়ে গিয়ে গুয়াম থেকে ১৭ মাইল দূরের সাগরের কাছাকাছি এলাকায় আঘাত হানবে হুয়াসং-১২ রকেট। বেশ কয়েকটি রকেট দিয়ে ওই এলাকায় হামলা চালানো হবে।