sentbe-top

অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে হঠাৎ একফ্রেমে কিম-ট্রাম্প

fake-trump-kimব্রেকিং নিউজই বটে। যাদের মুখ দেখাদেখি বন্ধ তারা একফ্রেমে ছবি তুলছেন। তাও আবার কিম জং উন আর ডোনাল্ট ট্রাম্প। একে অপরের কট্টোর বিরোধী দুই রাষ্ট্রপ্রধান গলা জড়াজড়ি করে ছবি তুলছেন। দেখে চমকেই গিয়েছিলেন সবাই। উচিতও তাই।

চারপাশে রীতিমত ভিড় জমে গিয়েছিল। এত হুমকি-পাল্টা হুমকির পর দিয়ে চলেছে একে অপরকে। আর পিয়ংচ্যাং অলিম্পিকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে একে অপরের গলা জড়িয়ে ছবি তুলছে। কীভাবে সম্ভব। চিন্তায় প্রায় ঘুম ওড়ার উপক্রম হয়েছিল সকলের। এই নিয়ে স্টেডিয়ামের মধ্যে রীতিমত শোরগোল পড়ে গিয়েছিল।

fake-trump-kimএত কাণ্ড ঘটে যাওয়ার পর প্রকাশ্যে আসে আসল তথ্য। আসলে তারা দু’জনের কেউই আসল ট্রাম্প বা আসল কিম নন। দুই রাষ্ট্র প্রধানের মত দেখতে শুধু। এতটাই এক দেখতে যে একঝলকে বোঝার উপায় নেই যে তারা আসল নন।

নিরাপত্তারক্ষীরা তাদের সরিয়ে নিয়ে গেলেও স্টেডিয়াম থেকে বের করতে পারেননি। কারণ দু’জনের কাছেই ছিল বৈধ টিকিট। কিন্তু পরিস্থিতি এতটাই উত্তেজক হয়ে উঠেছিল যে নকল কিম হওয়ার্ড এক্স এবং নকল ট্রাম্প ডেনিস অ্যালেনকে এক প্রকার নজরদারির মধ্যে রাখা হয়েছিল। তারা যাতে কোনওভাবেই কোনও প্রতিযোগীর সাথে কথা বলতে না পারেন এবং মার্কিন ও উত্তর কোরিয়ার প্রতিনিধিদের সংস্পর্শে না আসেন সেদিকে নজর রাখা হচ্ছিল।

fake-trump-kimস্টেডিয়ামের ভিআইপি করিডর থেকে শতহস্ত দূরে রাখা হয়েছিল তাদের। কারণ সেখানে সেদিন উপস্থিত ছিলেন মার্কিন ভাইল প্রেসিডেন্ট মাইক পেনস এবং কিমের বোন ইও জং।

বাংলাদেশ প্রতিদিন এর সৌজন্যে

sentbe-top