sentbe-top

বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবে দক্ষিণ কোরিয়ার চলচ্চিত্র নির্মাতাকে নিয়ে বিতর্ক

duk
দক্ষিণ কোরিয়ার চলচ্চিত্র নির্মাতা কিম কি দুক

বার্লিনে অনুষ্ঠিত চলচ্চিত্র উৎসবে যৌন হেনস্থায় অভিযুক্ত দক্ষিণ কোরিয়ার চলচ্চিত্র নির্মাতা কিম কি দুককে নিয়ে বিতর্কের সৃস্টি হয়েছে। এই উৎসবে তার নতুন ছবির প্রদর্শন নিয়েই যাবতীয় বিতর্ক।

ভ্যারাইটি পত্রিকা সূত্রে খবর, এ বছর বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবে আমন্ত্রিত হয়ে এসেছেন দক্ষিণ কোরিয়ার পরিচালক কিম কি দুক। তার নতুন ছবি ‘হিউম্যান, স্পেইস, টাইম অ্যান্ড হিউম্যান’ দেখানো হচ্ছে প্যানোরমা বিভাগে। সুবিখ্যাত বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসবের এই বিভাগটি অন্যান্য প্রতিযোগিতার তুলনায় অনেক বেশি সম্মানের। কারণ পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ পরিচালকদের ছবি স্থান পায় এই বিভাগে।

দুকের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ এনেছিলেন তার ‘মোয়েবিয়াস’ ছবির এক অভিনেত্রী। সেই অভিনেত্রী অভিযোগ করেছিলেন, পরিচালক কিম তাকে যৌন হেনস্থা করেছেন। শ্যুটিংয়ের সময় অভিনেত্রীকে চড়-থাপ্পড়ও মেরেছেন কিম। অভিযোগ স্বীকার করে নেন কিম। আদালতে তিনি বলেছিলেন, ‘আমি অভিনয় শেখাতে গিয়েই ওকে চড় মেরেছিলাম।’

আদালত পরিচালকে দোষী সাব্যস্ত করে চার হাজার ছয়শ’ ডলার জরিমানা করেছিল। সে অর্থও জমা দেন কিম। যদিও আদালতে যৌন হেনস্থার অভিযোগ প্রমাণ করতে পারেননি অভিনেত্রী।

দক্ষিণ কোরিয়ার সিনেমাতে কিম কি দুক বেশ আলোচিত নাম। তার ছবিতে কোরিয়ান সমাজের যৌনতা ও নৃশংসতার দিক বিশেষভাবে উপস্থাপিত হয়। তার এই নতুন ছবি ‘হিউম্যান, স্পেস, টাইম অ্যান্ড হিউম্যান’ছবিটিতেও তিনি মানুষের নৃশংসতার বিরুদ্ধেই সোচ্চার হয়েছেন।

এই পরিচালকের ছবি নির্বাচন করার বিষয়ে উৎসব পরিচালক ডিয়েটর কসলিক বলেছেন, “বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসব যৌন বা অন্য যে কোনো ধরণের নৃশংসতাকে বর্জন করে । ২০১৮ সালের প্যানোরমা বিভাগে কিম কি দুকের নতুন ছবি ‘হিউম্যান, স্পেস, টাইম অ্যান্ড হিউম্যান’ নির্বাচিত হয়েছে । পরিচালকের সঙ্গে পূর্বে ঘটা কোনো ঘটনা এখানে গুরুত্বপূর্ণ নয়।”

প্যানোরমা বিভাগের প্রধান পাজ লজারো বলেছেন, “আমরা ছবিটির সামাজিক দায় ও শিল্পগুণ বিচার করেই নির্বাচন করেছি। পরিচালকের ব্যক্তিগত জীবন এখানে বিবেচনার বিষয় নয়।”

১৫ ফেব্রুয়ারি শুরু হয়েছে ৬৮তম বার্লিন চলচ্চিত্র উৎসব । চলবে ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত ।

sentbe-top