cosmetics-ad

একযোগে ৬৪ জেলায় ফোরজি চালু করল রবি

robi-4g

মোবাইল ফোন অপারেটর রবি একযোগে দেশের ৬৪ জেলায় রবি ও এয়ারটেল ব্যান্ড গ্রাহকদের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে ফোরজি মোবাইল ইন্টারনেট সেবা চালু করেছে। ফোরজি লাইসেন্স পাওয়ার একদিন পর মঙ্গলবার (২০ ফেব্রুয়ারি) বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানায় অপারেটরটি। অনুষ্ঠানে ফোরজি এবং ৪.৫ জি উদ্বোধন করে রবি।

ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, বিটিআরসি চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ এবং টেলিযোগাযোগ সচিব শ্যাম সুন্দর সিকদার অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

সোমবার (১৯ ফেব্রুয়ারি) গ্রামীণফোন, রবি, বাংলালিংক ও টেলিটকের কাছে ফোরজি লাইসেন্স হস্তান্তর করে বিটিআরসি। টেলিটক ছাড়া বাকি অপারেটরগুলো এরইমধ্যে ফোরজি সেবা চালু করেছে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ফোরজি লাইসেন্স পাওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যে সেবাটি চালু করে রবি। তবে এটি আনুষ্ঠানিকতা।

টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, রবিকে ধন্যবাদ দেই, এতো অল্প সময়ের মধ্যে, আমরা কালকে লাইসেন্স হস্তান্তর করলাম। আজকে ৬৪ জেলায় চালু করলো। গ্রামে গ্রামে আমরা যখন ফোরজি পাবো তখনই স্বার্থক হবে।

ফোরজি সেবা চালুর মাধ্যমে সারা বিশ্বে বাংলাদেশের সক্ষমতার জানান দিচ্ছি উল্লেখ করে আইসিটি প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, রবি শুধু অপারেটর হিসেবেই নয়, ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনেও কাজ করছে। দেশের সব অঞ্চলে উচ্চগতির ইন্টারনেট দিতে পারলে সব ক্ষেত্রেই এগিয়ে যাবো।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান বলেন, অনেকে প্রশ্ন করেছেন থ্রিজি যেখানে সম্প্রসারিত হয়নি, সেখানে ফোরজি কেন? আমি বলবো টেকনোলজি ক্রমাগত বাড়তে থাকে। একটা থেকে যখন আরেকটায় যায় তখন নিশ্চয় ভালো হয়। যারা সফটওয়্যার ডিল করেন তারা এক ভার্সন থেকে আরেক ভার্সনে যান। পুরনো ভার্সনে যেসব ত্রুটি-বিচ্যুতি থাকে, যে দুর্বলতা থাকে সেগুলো বাদ দিয়ে নতুন নতুন ফিচার যোগ করে আসে। এতে সেবার মান উন্নত হয়। ঠিক তেমনটাই ফোরজি।

রবি সিইও বলেন, এই মুহূর্তে দেড় হাজার ফোরজি সাইট চালু করেছি। আমরা থেমে থাকবো না। ৪.৫ জি চালু করেছি, এটা অ্যাডভান্সড থাকবে। কাভারেজ হবে নাম্বার ওয়ান। ফেরজি সেবা দেবো থ্রিজি মূল্যে।

৬৪ জেলায় ফোরজি চালু প্রসঙ্গে তিনি বলেন, শুধু শহরের লোকজন নয়, ফোরজি সুবিধা গ্রামেগঞ্জে পৌঁছে দিতে হবে। এ মাসের মধ্যে তার প্রতিফলন দেখতে পাবেন।

প্রতিটি বিভাগীয় শহরে স্থানীয় বিশিষ্ট ব্যক্তিদের সঙ্গে নিয়ে রবির ম্যানেজমেন্ট কাউন্সিলের সদস্যদের ফোরজি চালুর মুহূর্তটি উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভিডিও কলের মাধ্যমে দেখানো হয়।