sentbe-top

আগামীকাল দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশ উৎসব

আগামীকাল দক্ষিণ কোরিয়ার উইজংবুতে অনুষ্টিত হতে যাচ্ছে দক্ষিণ কোরিয়ায় বাংলাদেশীদের সবচেয়ে বড় মিলনমেলা বাংলাদেশ উৎসব। স্টেজ পারফর্ম করতে ইতিমধ্যে সিউলে পৌঁছেছেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী আঁখি আলমগীর এবং আগুন, কৌতুক অভিনেতা কাজল এবং মডেল ও অভিনেত্রী প্রিয়াংকা।

উইজংবু’র সিনহান ইউনিভার্সিটিতে ‘বাংলাদেশ উৎসব ২০১৮ আয়োজক কমিটি’ এই উৎসবের আয়োজন করেছে। বাংলাদেশ থেকে আসা শিল্পীদের গান, কোরিয়া প্রবাসীদের গান, নাচ, বাংলা খাবারের আয়োজনসহ নানা আয়োজনে মেতে উঠবে বাংলাদেশী প্রবাসীরা।

এবারের বাংলাদেশ উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ বাংলাদেশের জনপ্রিয় শিল্পী আঁখি আলমগীর এবং আগুন। জনপ্রিয় এই দুই শিল্পীর গানগুলো কোরিয়া প্রবাসীরা আনন্দের সাথে উপভোগ করার সুযোগ পাবেন। স্টেজ মাতাবেন কৌতুক অভিনেতা কাজল এবং মডেল ও অভিনেত্রী প্রিয়াংকা। কোরিয়া প্রবাসী শিল্পীদের নিয়ে থাকবে বিশেষ একটি পর্ব। কোরিয়ার পরিচিত এবং জনপ্রিয় শিল্পীরা এই পর্বে মঞ্চ মাতাবেন।

উৎসবে সিউলস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত আবিদা ইসলাম প্রধান অতিথি এবং বাংলাদেশ উইজংবু সিটির মেয়র আন বিয়ং ইয়োং বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। দশ হাজার উওনের কুপন কিনে যে কেউ পেতে পারেন সিউল-ঢাকা-সিউল টিকেটসহ ১০টি আকর্ষণীয় পুরস্কার। এছাড়া উৎসবে থাকছে বিভিন্ন ধরণের বাংলা খাবারের স্টল। প্রবাস জীবনের একাকীত্ব এবং কাজের চাপে বন্ধু বান্ধবের সাথে দেখা করার সুযোগ হয়ে উঠেনা।

আয়োজক কমিটির’র সদস্য কে এম আসাদ আশা করছেন বাংলাদেশ উৎসবে হাজার হাজার বাংলাদেশী যোগ দিবেন। তিনি বলেন ‘কোরিয়ার ব্যস্ত জীবনে শুধু বন্ধবান্ধব নয়, স্বদেশী হাজারো মুখ দেখার সুযোগ হয় এইদিন। বছরে দেখা না হওয়া বন্ধুদের সাথেও এই উৎসবে দেখা হয়ে যায়। এই জন্যই প্রবাস জীবনে বাংলাদেশ উৎসবের গুরুত্ব আলাদা। সকল কোরিয়া প্রবাসীকে উৎসবের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা এবং আমন্ত্রণ জানাচ্ছি’।

বাংলাদেশ উৎসবে আয়োজক কমিটির সাথে সহযোগিতায় আছে বাংলাদেশ এবং কোরিয়ার বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। উৎসবে পৃষ্ঠপোষক হিসেবে থাকছে কোরিয়া একচেঞ্জ ব্যাংক, প্রাইম ব্যাংক, স্টার রেমিট, আল মাইয়িদা হালাল ফুড, ইএস শিপিং, ফর ইউ মার্ট এবং মিরে ট্রেডিং। মিডিয়া পার্টনার হিসেবে আছে বাংলাভিশন এবং বাংলা টেলিগ্রাফ।

যেভাবে যাবেন: সিউল সাবওয়ের ১ নম্বর লাইনের মাংউওলসা স্টেশন (망월사역) নেমে ৩ নং এক্সিট দিয়ে বের হলেই সিনহান বিশ্ববিদ্যালয়ের গেইট। সাবওয়ে গেইটে আয়োজক কমিটির স্বেচ্ছাসেবকবৃন্দ থাকবেন।

sentbe-top