sentbe-top

ছাত্রদের বেশি করে ফেসবুক ব্যবহারের পরামর্শ দিলেন মমতা

momotaজনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভারতের ক্ষমতাসীন রাজনৈতিক দল বিজেপিকে মোকাবেলা করতে ছাত্রদের বেশি করে ফেসবুক এবং টুইটার ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল কংগ্রেসের প্রধান মমতা বন্দোপাধ্যায়। মঙ্গলবার কলকাতার মেয়ো রোডের সভামঞ্চে তৃণমূল ছাত্র পরিষদের এক সমাবেশে ছাত্র নেতাদের তিনি এ পরামর্শ দেন।

তৃণমূল ছাত্র পরিষদের প্রতিষ্ঠা দিবস উপলক্ষে মেয়ো রোডে ওই সভার আয়োজন করা হয়। সভায় বক্তৃতার শুরুতে ছাত্র-ছাত্রীদের নিজেদের দায়িত্বের কথা স্মরণ করিয়ে দেন মমতা। টাকার পেছনে না ছুটে কাজকেই জীবনের মূলমন্ত্র করার নির্দেশ দেন তিনি।

পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন এই দলের ছাত্র শাখার অন্তর্দ্বন্দ্বের বিরুদ্ধেও কড়া বার্তা দেন মমতা। এরপরই ছাত্রপরিষদের সভামঞ্চ থেকে বিজেপিকে একহাত নেন তিনি। কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন নীতির কড়া সমালোচনা করেন পশ্চিমবঙ্গের এই মুখ্যমন্ত্রী।

দেশটির জাতীয় রাজনীতিতে বর্তমানের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় জাতীয় নাগরিক পঞ্জির (এনআরসি) সমালোচনা করেন মমতা। সম্প্রতি অাসামে জাতীয় নাগরিক পঞ্জির খসড়া তালিকা থেকে ৪০ লাখ বাঙালির নাম বাদ দেয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান তৃণমূল নেত্রী। কিছুদিন আগে আসামের ন্যায় পশ্চিমবঙ্গেও অবৈধদের তাড়িয়ে দিতে নাগরিক পঞ্জি চালুর দাবি জানায় বিজেপি।

sentbe-adপশ্চিমবঙ্গে জাতীয় নাগরিক পঞ্জির তীব্র বিরোধিতা করে বিজেপির উদ্দেশে কড়া হুঁশিয়ারি দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিজেপির উদ্দেশে তিনি বলেন, এখানে বাঘের বাচ্চারা বসে আছে। তাই এখানে বিজেপির এসব অভিসন্ধি খাটবে না।

শুধু এনআরসি ইস্যু নয়। ব্যাঙ্ক জালিয়াতি, পেট্রোপণ্যের মূল্যবৃদ্ধি, টাকার দামের পতন, নোট বাতিলসহ বিভিন্ন ইস্যুতে কেন্দ্রকে একহাত নেন মমতা। সোশ্যাল মিডিয়ায় মিথ্যা প্রচার চালিয়ে বিজেপি মানুষকে বিভ্রান্ত করছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

মমতা বলেন, মানুষকে সত্য জানতে দেয়া হচ্ছে না। সত্য মানুষের সামনে তুলে ধরার জন্য তিনি ছাত্র-যুবদের বেশি করে ফেসবুক-টুইটার ব্যবহারের নির্দেশ দেন। ছাত্রদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, একটা বাজে কথা বললে দশটা জবাব দেবে। এমন জবাব দেবে, যাতে লেজ গুটিয়ে পালায়।

sentbe-top