sentbe-top

কথা রাখলেন কিম

kimউত্তর কোরিয়ার ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর সামরিক প্যারেড অনুষ্ঠানে কোনো ধরনের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্রের প্রদর্শন করা হয়নি। রোববার পিইয়ংইয়ংয়ে অনুষ্ঠিত ওই প্যারেডে দেশটির নেতা কিম জং উন বক্তৃতা করেছেন কি-না তা পরিষ্কার নয়।

কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণে কিম জং উনের দেয়া অঙ্গীকার এবং প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ক্ষেপণাস্ত্রের প্রদর্শনী না হওয়ায় দেশটির অস্ত্রভাণ্ডার ও প্যারেড অনুষ্ঠান নিয়ে ব্যাপক বিশ্লেষণ চলছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে ঐতিহাসিক বৈঠকের পর কিম জং উন প্রদর্শনী সীমিত করবেন বলে কিছু বিশ্লেষক ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর এ আয়োজনে অস্ত্র প্রদর্শন না করার মাধ্যমে উত্তর কোরিয়া এটা প্রমাণ করতে চাচ্ছে যে পারমাণবিক নিরিস্ত্রীকরণের যে প্রতিশ্রুতি তারা দিয়েছে সেটা পূরণ করা হচ্ছে।

sentbe-adপ্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর প্যারেডের কোনো ছবি প্রকাশ করা না হলেও বার্তাসংস্থা এএফপি প্যারেডে থাকা তাদের এক প্রতিনিধির বরাত দিয়ে বলছে, প্যারডে আন্তঃমহাদেশীয় কোনো ক্ষেপণাস্ত্র দেখা যায়নি। এছাড়া উত্তর কোরিয়ার এনকে নিউজ বলছে, তাদের কাছে দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন থেকে পাওয়া ওই প্যারেডের ছবি আছে।

কোরীয় উপদ্বীপকে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণের লক্ষ্যে গত ১২ জুন কিম জং উন এবং মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের মধ্যে সিঙ্গাপুরে একটি অস্পষ্ট চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। কিন্তু সে চুক্তিতে নির্দিষ্ট সময়সীমা বা কি পদ্ধতিতে পারমাণবিক নিরস্ত্রীকরণ কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে সেবিষয়ে বিস্তারিত কোনো কিছুই বলা হয়নি।

sentbe-top