ধর্ষণ থেকে রেহাই পেল না ১০০ বছরের বৃদ্ধাও

old-woman-rapedভারতের পশ্চিমবঙ্গের নদীয়া জেলায় ১০০ বছর বয়সের বৃদ্ধাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে ২০ বছরের এক যুবকের বিরুদ্ধে। এই অভিযোগে পুলিশ ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে।

নদীয়ার চাকদা এলাকার চাঁদুড়িয়ার এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের গঙ্গাপ্রসাদপুরের বাসিন্দা নির্যাতিতা ওই বৃদ্ধা। ধর্ষণের শিকার ওই বৃদ্ধার স্বজনরা বলেছেন, সোমবার গভীর রাতে বৃদ্ধার ঘরে ঢোকে প্রতিবেশী যুবক অভিজিত বিশ্বাস। সেইসময় ঘরে ওই বৃদ্ধা একাই ছিলেন; ঘুমাচ্ছিলেন তিনি।

এসময় ওই বৃদ্ধার উপর যৌন নিপীড়ন চালায় অভিজিত। বৃদ্ধার চিৎকারে ছুটে আসেন পরিবারের সদস্যরা। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে বৃদ্ধার ঘরে খাটের নিচে লুকিয়ে পড়ে অভিযুক্ত যুবক। পরে তাকে ধরে গণধোলাই দেয়া হয়।

খবর পাওয়ার পর ঘটনাস্থলে পৌঁছে ওই যুবককে গ্রেফতার করে চাকদা থানার পুলিশ। এ ঘটনায় চাকদা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে নির্যাতিতা বৃদ্ধার পরিবার।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জিনিউজ বলছে, বৃদ্ধাকে প্রথমে চাকদা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে কল্যাণীর জওহরলাল নেহরু হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে বুধবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন তিনি।

দেশটির অপর এক বাংলা দৈনিক বলছে, পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে অভিযুক্ত ওই যুবক বলেছে, অতিরিক্ত মদ্যপানের কারণে জ্ঞান হারিয়ে এই ঘটনা ঘটিয়েছে সে। বুধবার কল্যাণী আদালতে তোলা হলে বিচারক অভিযুক্ত যুবককে ১৪ দিনের জেল হেফাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন।