sentbe-top

পাসপোর্টের মেয়াদ না থাকায় লাশ নিয়ে বিপত্তি

omanসাদেক সরকার ওমানের আল বাদি কোম্পানিতে সাপ্লাইয়ের কাজ করত। দেশটিতে বসবাসের কোনো বৈধ কাগজপত্র ছিল না। এ ছাড়া পাসপোর্টের মেয়াদ না থাকায় মৃত সাদেকের মরদেহটি দেশে পাঠাতে বেশ হিমশিম খাচ্ছে প্রবাসীরা।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় ওমানের সোহার এলাকায় সাদেক সরকার হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে পরে তাকে প্রবাসী আশিক খানের সহযোগিতায় স্থানীয় লাইফ লাইন হসপিটালে নিয়ে যাওয়া হয়। হসপিটালে নেয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

জানা গেছে, প্রতিদিনের মতো গতকালও ডিউটিতে এসেছিলেন কুমিল্লা মুরাদনগরের মুহাম্মাদ সাদেক সরকার। হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে ঘণ্টাখানেক পরেই তিনি না ফেরার দেশে চলে যান। সরকারের বাড়ি কুমিল্লার মুরাদনগর থানার কামালা ইউনিয়নের নোয়াগাও গ্রামে। বাবার নাম মৃত্যু বশির সরকার।

মরদেহটি সোহার মেডিকেল মর্গে রাখা হয়েছে। আত্মীয়-স্বজন প্রিয়জনের মরদেহটি শেষবারের মতো দেখার অধীর আগ্রহে দেশে অপেক্ষা করছে। এমতাবস্থায় ওমানের বিশিষ্ট ব্যবসায়ীদের কাছে মানবিক সহযোগিতা চেয়েছে মৃত সাদেক সরকারের পরিবার। যোগাযোগ করা যাবে- মুহাম্মাদ বাইজিদ আল-হাসান-৭১৯২৭৩৯৮।

সৌজন্যে- জাগো নিউজ

sentbe-top