সিরাজগঞ্জে প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ কেটে নিয়ে থানায় হাজির প্রেমিকা

sirajgonj-newsসিরাজগঞ্জের কামারখন্দে পরকীয়া প্রেমিকাকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করায় প্রেমিক দুলালের (৫৫) লিঙ্গ কর্তন করা হয়েছে। আশংকাজনক অবস্থায় রোববার রাতে তাকে সিরাজগঞ্জ বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। প্রেমিক দুলাল হোসেন কামারখন্দ উপজেলার ঝাঐল ইউনিয়নের বাগবাড়ি গ্রামের মৃত জাবেদ আলীর ছেলে ।

স্থানীয় ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, দুলাল হোসেনের সাথে একই গ্রামের আব্দুস সাত্তারের স্ত্রীর দীর্ঘদিন ধরে পরকীয়া প্রেম চলে আসছিলো। এনিয়ে এলাকায় একাধিকবার সালিশি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। গত কিছুদিন হলো তাদের প্রেমের সম্পর্কের অবনতি হয়। রোববার সন্ধ্যায় ঐ মহিলার স্বামী আব্দুস সাত্তার বাড়ি থেকে বের হয়। এই সুযোগে দুলাল হোসেন তার বাড়ির মধ্যে প্রবেশ করে তাকে জোর করে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এসময় ঐ মহিলা ধারালো অস্ত্র দিয়ে দুলালের লিঙ্গ কেটে দেয়। পরে তার পরিবারের লোকজন তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

সিরাজগঞ্জ বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জেনারেল হাসপাতালে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক ডাক্তার রোকনুজ্জামান বলেন, দুলালের অবস্থা ভালো না। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হবে।

এদিকে, নির্যাতিতা কাটা পুরুষাঙ্গ ও বটি নিয়ে থানায় হাজির হন। কামারখন্দ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিবুল ইসলাম জানান, প্রেমিকের পুরুষাঙ্গ কর্তন করা ওই নারী স্বেচ্ছায় থানায় কর্তন করা পুরুষাঙ্গ ও বটি নিয়ে হাজির হন। তখন তাকে থানা হেফাজতে রেখে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা হয়। এ ঘটনায় দুলালের পরিবারের পক্ষ থেকে মামলার প্রক্রিয়া চলছে এবং রওশনারাকে আটক রাখা হয়েছে।

কামারখন্দ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ওসি হাবিবুল ইসলাম জানান, বিষয়টি জানার পর ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।