cosmetics-ad

ঢাকার ধামরাইয়ে দৃষ্টিনন্দন মসজিদ উদ্বোধন

dhamrai-mosjid

ঢাকার ধামরাই উপজেলার ঐতিহ্যবাহী শৈলান গ্রামে শত বছরের পুরনো মসজিদের পরিবর্তে সাড়ে ছয় হাজার বর্গফুটের দোতলা বিশিষ্ট নবনির্মিত মসজিদ গত শুক্রবার উদ্বোধন করা হয়েছে। কারুকাজ মণ্ডিত এ মসজিদটি উদ্বোধন করেন ঢাকা-২০ (ধামরাই) আসনের সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ বেনজির আহমেদ।

প্রায় পাঁচ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত মসজিদটিতে একসাথে দেড় হাজার মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। মহিলাদের জন্যও বিশেষ ব্যবস্থা করা হয়েছে। এতে একসাথে ৫০০ মহিলা মুসল্লি নামাজ পড়তে পারবেন। মসজিদে ১২০ ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট একটি মিনার তৈরি করা হয়েছে। মসজিদের মূল ফটকটিতে আল্লাহর ৯৯ নাম খোদাই করা হয়েছে, যা দেখতে খুবই দৃষ্টিনন্দন। বর্তমানে এটি ধামরাই উপজেলায় বৃহৎ মসজিদ বলে জানা গেছে।

জামায়াতে নামাজ আদায় করার জন্য এ জায়গায় প্রথমে ১৯২০ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল একটি মসজিদ। মুসল্লি বেড়ে যাওয়ায় এবং পুরনো মসজিদটি ভগ্নাদশা হয়ে পড়লে এলাকাবাসীর উদ্যোগে ও শৈলান গ্রামের প্রবাসীদের সাহায্যে এ রকম একটি দৃষ্টিনন্দন মসজিদ প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। গত শুক্রবার জুমার নামাজের মধ্য দিয়ে মসজিদটি আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন করেন স্থানীয় এমপি।

এ সময় ধামরাই পৌর মেয়র আলহাজ গোলাম কবির মোল্লা, সজাগের পরিচালক আব্দুল মতিনসহ এলাকার গণ্যমান ব্যক্তিসহ এলাকার শত শত মুসল্লিরা উপস্থিত ছিলেন। জুমার নামাজে আশপাশের গ্রাম থেকে প্রায় দেড় হাজারের বেশি মুসল্লি নামাজ আদায় করেন। এ দিন মসজিদের ভেতর জায়গা না হওয়ায় মসজিদের মাঠে মুসল্লিরা নামাজ আদায় করেন।