cosmetics-ad

ভ্রমণ ভিসার অনুমোদন দিলো সৌদি আরব

saudi-travel-visa

বিদেশি পর্যটকদের দেশে অনুষ্ঠিত খেলা, কনসার্ট আর অন্যান্য আয়োজনে অংশগ্রহণের সুযোগ তৈরি করে দিতে ইলেকট্রনিক ভিসা চালুর অনুমোদন দিয়েছে সৌদি আরবের মন্ত্রিসভা। সোমবার মন্ত্রিসভার এক বৈঠকে নুতন এই ভিসা পদ্ধতির অনুমোদন দেয়া হয় বলে জানিয়েছে দেশটির স্থানীয় গণমাধ্যম।

সৌদি আরবের গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, বিশ্বের শীর্ষ তেল রফতানিকারক দেশ সৌদি তাদের অর্থনীতিকে বহুমুখী করাসহ বিধি-নিষেধের পরিবর্তন এনে সমাজকে উন্মুক্ত করার প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে এই উদ্যোগ নিয়েছে। পর্যটকদের ভ্রমণের ব্যাপারে খুবই রক্ষণশীল সৌদি নতুন করে এ সিদ্ধান্ত নিল।

সৌদি আরবের সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, অর্থনৈতিক উন্নয়নের অংশ হিসেবে যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমান স্থানীয় নাগরিক ও বিদেশি পর্যটকদের জন্য পর্যটন খাতে ব্যয়ের অর্থ উত্তোলন করার লক্ষ্যে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। আগেও বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নেন সৌদি আরবের ডি-ফ্যাক্টো নেতা সালমান।

গত কয়েক বছর ধরে পর্যটকদের প্রবেশের অনুমোদনের ব্যাপারে আলোচনা চলছিল দেশটিতে। শুধুমাত্র রক্ষণশীল মতামত ও আমলাতন্ত্রের কারণেই এতদিন এমন সিদ্ধান্ত নিতে বিলম্ব হচ্ছিল।

দেশটির রাষ্ট্রীয় দৈনিক আরব নিউজ বলছে, দূতাবাস ও কনসল্যুটের অনুরোধ পাওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ভিসা পাবেন আবেদনকারী। তবে কবে থেকে এই ভিসা সুবিধা দেয়া শুরু হবে সে বিষয়ে নির্দিষ্ট করে এখনো কিছু জানানো হয়নি দেশটির পক্ষ থেকে।

যুবরাজ সালমান নতুন নতুন সব উদ্যোগ নিচ্ছেন। দেশটিতে গত ৪০ বছর ধরে নিষিদ্ধ থাকা সিনেমা ও সংগীতানুষ্ঠান আয়োজেনর অনুমোদন দেয়া হয়েছে। তাছাড়া পশ্চিমা পপ তারকাদের দেশটিতে পারফর্ম করা ও আন্তর্জাতিক ক্রীড়া অনুষ্ঠান আয়োজনের অনুমোদনও দিয়েছেন তিনি।

তবে সালমানের সমালোচনা কিংবা বিরোধিতা করায় দেশটিতে এখন পর্যন্ত বহু মানবাধিকার কর্মী, বুদ্ধিজীবী ও ধর্মীয় ব্যক্তিত্বকে আটক করা হয়েছে। সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যা এবং ইয়েমেনের যুদ্ধে মদদ দেয়ার অভিযোগে আন্তর্জাতিকভাবে সমালোচনার মুখোমুখি হতে হয়েছে তাকে।