cosmetics-ad

বোরকাকে বাধ্যতামূলক করার দাবি ইসলামী আন্দোলনের

Islami-Andolonযৌন নিপীড়ন বন্ধে বোরকাকে বাধ্যতামূলক করার দাবি জানিয়েছে চরমোনাই পীরের দল ইসলামী আন্দোলন। সোমবার (৮ এপ্রিল) এক বিবৃতিতে দলটির মহাসচিব মাওলানা ইউনুছ আহমাদ এ দাবি জানান। একইসঙ্গে ফেনীর সোনাগাজীতে আলিম পরিক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টায় গভীর উদ্বেগ ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি।

বিবৃতিতে মাওলানা ইউনুছ আহমাদ বলেন, ‘মাদ্রাসার শিক্ষকের হাতে ছাত্রী নিপীড়িত হওয়ার ঘটনা পুরো জাতিকে ভাবিয়ে তুলেছে। আর নিপীড়িত ছাত্রী যখন থানায় অভিযোগ করেছে, তখন তাকে পুড়িয়ে মারার মত জঘন্য কাজটি যারা করেছে; তারা আর যাই হোক মানুষ হতে পারে না। এ ধরনের ঘটনা মাদ্রাসা শিক্ষাকে প্রশ্নবিদ্ধ করবে। যে শিক্ষক এ অপকর্ম করেছেন, তিনি মাদ্রাসাশিক্ষাকে জাতির সামনে চরম হেয় করেছেন। মাদ্রাসার অধ্যক্ষকে সাময়িক বরখাস্ত করলেই হবে না, তাকে কঠোর শাস্তির আওতায় আনতে হবে।’

মাওলানা ইউনুছ আহমাদ আরও বলেন, ‘স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়সহ যেখানেই ছাত্রী নিপীড়নের মতো ঘটনা ঘটবে, সেখানেই কঠোর প্রতিবাদ গড়ে তুলতে হবে। দোষীদেরকে শাস্তির আওতায় আনতে হবে। স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে অব্যাহতগতিতে ছাত্রী নিপীড়নের মতো ঘটনা ঘটছে। এ ধরনের ইভটিজিং ও নিপীড়নের কঠোর শাস্তির আইন থাকলেও আইনের ফাঁক-ফোকর দিয়ে বের হতে পারায় এ ধরনের যৌন নিপীড়ন বেড়েই চলছে।’