Search
Close this search box.
Search
Close this search box.

কাশ্মীর ইস্যুতে তলোয়ার হাতে শত্রু খতমের ডাক পাকিস্তানি কিংবদন্তির

miaভারত-পাকিস্তানের রাজনৈতিক বৈরিতা নতুন কিছু নয়। তবে সাম্প্রতিক কাশ্মীর ইস্যুতে এই বৈরিতাটা যুদ্ধের দিকে রূপ নিচ্ছে। দুই দেশের মধ্যে এখন যেমন অবস্থা বিরাজ করছে, যে কোনো সময় যে কোনো কিছু ঘটতে পারে।

chardike-ad

৩৭০ ধারা তুলে দিয়ে কাশ্মীরে অস্থিতিশীল এক পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছে নরেন্দ্র মোদির সরকার। ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে গণহত্যার মতো অপরাধ হওয়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। কার্যত কাশ্মীরকে বিশ্ব থেকে বিচ্ছিন্ন করে রাখায় এখন সেখানে কি হচ্ছে, সেটি জানতেও পারছেন না অন্যরা।

এমন অবস্থা সৃষ্টির পরই কাশ্মীরিদের পাশে দাঁড়ানোর ঘোষণা দেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। একইরকম সমর্থনের কথা জানান শহীদ আফ্রিদির মতো ক্রিকেটার। এবার শুধু সমর্থন নয়, কাশ্মীরিদের জন্য লড়াই করার ঘোষণা দিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান জাভেদ মিয়াঁদাদ।

এবং সেই ঘোষণাটা তিনি দিয়েছেন হাতে খোলা তলোয়ার নিয়ে। মিঁয়াদাদের সেই তলোয়ার হাতে নেয়া ভিডিও প্রকাশ হবার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হতে সময় নেয়নি।

ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা যায়, মিয়াঁদাদ হাতে তলোয়ার নিয়ে বলছেন, ‘কাশ্মীরের ভাইয়েরা, ভয়ের কোনও কারণ নেই। আমরা রয়েছি আপনাদের সঙ্গে। আগে আমি ব্যাট হাতে ছয় মেরেছি। এখন আমি এই তলোয়ারও ব্যবহার করতে পারি।’

এখানেই থামেননি পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক। যোগ করেন, ‘আমি যদি ব্যাট দিয়ে ছয় মারতে পারি, তা হলে এই তলোয়ার দিয়ে একটা মানুষ মারতে পারব না?’

মিয়াঁদাদের এই ভিডিও পাকিস্তানি টিভি চ্যানেল এবং ওয়েবসাইটে ছড়িয়ে পড়ে। ভারতীয়রা স্বাভাবিকভাবেই বিষয়টিকে ভালোভাবে নেয়নি। একজন ক্রিকেটার হয়ে এমন উস্কানিমূলক বক্তব্য দেয়ায় তার সমালোচনায় মেতেছেন তারা।