cosmetics-ad

৭১ নিয়ে ঢাকায় মোদীর বক্তব্য, পাকিস্তানের কড়া বিবৃতি

pakistan-speak

বাংলাদেশ সফরের সময় রোববার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুষ্ঠানে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কিছু বক্তব্য নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে পাকিস্তান।

আজ (মঙ্গলবার) ইসলামাবাদে পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, মি মোদীর বক্তব্য নতুন করে প্রমাণ করে ১৯৭১ সালে প্রতিবেশী সার্বভৌম রাষ্ট্রে ভারত নাক গলিয়েছিলো।

পাকিস্তান পররাষ্ট্র দপ্তরের মুখপাত্র কাজি খলিলুল্লাহ বলেন, “এটা অত্যন্ত দুঃখের বিষয় ভারতীয় রাজনীতিকরা জাতিসংঘের সনদ লঙ্ঘন করে শুধু যে অন্যদেশে নাকই গলান তাই নয়, সেটা নিয়ে তারা গর্বও করেন।”

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত ভাষণে ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী ১৯৭১ সালে বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ভারতের ভূমিকা নিয়ে কথা বলেন। সে সময় নরেন্দ্র মোদী পাকিস্তানের কড়া সমালোচনা করেন।

হিন্দিতে দেওয়া মি মোদী তার ভাষণে বলেন,” পাকিস্তান সর্বক্ষণ ভারতকে বিরক্ত করছে, যন্ত্রণা সৃষ্টি করছে… (পাকিস্তান) সন্ত্রাসকে মদত দিচ্ছে…একর পর এক সন্ত্রাসী হামলা ঘটছে।”

মি মোদীর এই বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় পাকিস্তানের বিবৃতিতে বলা হয়, “পাকিস্তান সবসময় ভারতের সাথে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক চায়। সেই সম্পর্ক নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর মোদীর এ ধরণের বক্তব্য দু:খজনক।”

পাকিস্তান-বাংলাদেশ সম্পর্কে “বিরোধের বীজ”

পাকিস্তানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয় বাংলাদেশের সাথে পাকিস্তানের ‘ভ্রাতৃত্বপূর্ণ’ সম্পর্কে বিভেদের বীজ বপনের চেষ্টা করছে ভারত। “সেই চেষ্টা সফল হবে না।”

বলা হয়েছে, “পাকিস্তান ও বাংলাদেশের মধ্যে শুধু যে ধর্মীয় ঐক্য রয়েছে তাই নয়, ঔপনিবেশবাদের বিরুদ্ধে স্বাধীনতার লড়াইতেও এই দুই দেশের ইতিহাস অভিন্ন।”

সুত্রঃ  বিবিসি